জামালপুরে ‘মাথা নেওয়ার গুজবে’ যুবক গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ৬:৫৯ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১৩, ২০১৯

পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা নেওয়া হচ্ছে—সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এমন গুজব ছড়ানোর অভিযোগে জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার মো. ফোরকান হোসেন (২৪) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। গতকাল শুক্রবার উপজেলার ধারারচর গ্রাম থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ফোরকান হোসেন উপজেলার ধারারচর গ্রামের কৃষক সোনা মিয়ার ছেলে। তিনি আলিম পাস করে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং পাস করেছেন।শহরের বেলটিয়া এলাকায় জামালপুর র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব-১৪) কার্যালয়ে গতকাল শুক্রবার রাত আটটার দিকে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন র‌্যাবের জামালপুর ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক পুলিশ সুপার মো. তোফায়েল আহমেদ।

সংবাদ সম্মেলনে তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘গত ৯ জুলাই পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা লাগার বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে গুজব ছড়ান ওই যুবক। তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় স্ট্যাটাসের বিষয়ে আমরা নিশ্চিত হই। পরে ওই যুবকের অবস্থান নির্ধারণ করা হয়।’ তিনি জানান, গতকাল সন্ধ্যা ছয়টার দিকে বকশীগঞ্জ উপজেলার ধারারচর গ্রামের ফোরকানের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁর কাছ থেকে দুটি অ্যান্ড্রয়েড মুঠোফোন জব্দ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করে তাঁকে আজ শনিবার সকালে বকশীগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।