ছেলেদের পর ভারতের মেয়েদেরও হাস্যকর রানআউট

প্রকাশিত: ২:১৮ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২০

ব্যাটিংয়ে নেমে আউট হবেন ব্যাটসম্যান- ক্রিকেট মাঠের খুবই স্বাভাবিক ঘটনা এটি। কখনও ক্যাচআউট, কখনওবা বোল্ড, আবার কখনও লেগ বিফোরে কাঁটা পড়ে ফিরতে হয় সাজঘরে। এছাড়া রানআউটের ঘটনাও দেখা যায় অহরহ।

কিন্তু রান নিতে গিয়ে যখন দুই ব্যাটসম্যান পৌঁছে যান একই প্রান্তে, তখন তা হাস্যরসের জন্ম দেয় ক্রিকেট দুনিয়ায়। আর এমন ঘটনা যখন নিয়মিত হয়ে ওঠে কোনো দলের জন্য, তখন সেটি যেনো হয়ে যায় আরও বেশি ট্রলের বস্তু।

তেমনই কাণ্ড ঘটালো এবার ভারতের দুই ক্রিকেট দল। চলতি মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিপক্ষে যুব বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচে ভারতের দুই যুবা পৌঁছে গিয়েছিলেন একই প্রান্তে। হয়েছিলেন রান আউট।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের ৪৩তম ওভারের দ্বিতীয় বলে পয়েন্ট অঞ্চলে ঠেলে দিয়েই রানের জন্য ছুটেছিলেন ধ্রুব জুরেল। তবে সেটি নাকচ করে দিয়েছিলেন অপরপ্রান্তের ব্যাটসম্যান অথর্ব আঙ্কোলেকার।

ততক্ষণে হয়েছিল অনেক দেরি। দুই ব্যাটসম্যান থেকে যান একই প্রান্তে। পয়েন্টের ফিল্ডার শামীম হোসেনের হাত ঘুরে বল চলে যায় উইকেটরক্ষক আকবর আলির হাতে। উইকেট ভেঙে দিয়ে জুরেলের বিদায় ঘণ্টা বাজিয়ে দেন আকবর।

সে ঘটনার ১৫ দিনের মাথায় এবার নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচে ঘটলো একই ঘটনা। এবারও টস জিতে ভারতকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছে বাংলাদেশ এবং ইনিংসের শেষদিকেই দুই ব্যাটসম্যান একপ্রান্তে পৌঁছে হয়েছেন রানআউট।

ইনিংসের ১৭তম ওভারের শেষ বলে অফস্টাম্পের বাইরের বলে সজোরে ব্যাট চালান দিপ্তি শর্মা। সহজেই নেন ১ রান। কিন্তু দ্বিতীয় রান নেয়ার সময় ননস্ট্রাইক প্রান্তে পড়ে যান তিনি। সেটি খেয়াল করেননি ভেদা কৃষ্ণামুর্থি। দ্বিতীয় রানের জন্য ছুটে তিনিও চলে আসেন একই প্রান্তে।

ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের এমন কাণ্ড দেখে খেই হারাননি ফারজানা হক। ঠান্ডা মাথায় বল ধরে সেটি পাঠিয়ে দেন উইকেটরক্ষক নিগার সুলতানার গ্লাভসে। যিনি বিদায় ঘণ্টা বাজিয়ে দেন ১৬ বলে ১১ রান করা দিপ্তির।

এই হাস্যকর আউটের ভিডিও দেখুনঃ

Sharing is caring!