ছিটকে গেলেন মাশরাফিরা, অপেক্ষায় রিয়াদরা

প্রকাশিত: ১২:২৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০২০

হাতে ১৪ সেলাই নিয়ে খেলেও ঢাকার হার ঠেকাতে পারেননি অধিনায়ক মাশরাফি বিন  মোর্তজা। মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিপক্ষে সাত উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হেরে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের  এলিমিনেটর ম্যাচ হের ছিটকে গেল ঢাকা প্লাটুন।

বাঁচা-মরার ম্যাচে বিব্রতকর ব্যাটিংয়ে পাওয়ারপ্লে-তে তিন উইকেট হারিয়ে বাজে শুরু করে ঢাকা প্লাটুন। এরপর ১৩ তম ওভারে মাত্র ৬০ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে ধুকতে থাকে দলটি। ওই অবস্থা থেকে দুর্দান্ত ব্যাটিং করে লজ্জার হাত থেকে দলকে বাঁচান শাদাব খান। শাদাবের ৪১ বলে ৬৪ রানের ওপর ভর করে ১৪৪ রান সংগ্রহ করে ঢাকা।

১৪৫ রানের টার্গেটে তাড়া করতে নেমে ১৪ বল হাতে রেখে সাত উইকেটে জয় তুলে নেয় চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স।

চট্টগ্রামের হয়ে সর্বোচ্চ ৩৯ রান করেন ক্রিস গেইল। তবে তার ইনিংসটি ছিল ধীরগতির। ৪৯ বলে এই রান করেন। ওপেনিংয়ে ঝড় তোলেন জিয়া, মাত্র ১২ বলে করেন ২৫ রান। ইমরুল ২২ বলে ৩২ রান করে সাজঘরে ফেরেন। এরপর ১৪ বলে ৩৪ নিয়ে মাহমুদউল্লাহ ও ১০ বলে ১২ রান নিয়ে ওয়ালটন অপরাজিত থেকে জয়ের বন্দরে ভেড়ান দলকে। এই জয়ের মধ্যে দিয়ে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচের অপেক্ষায় রইলো চট্টগ্রাম। সন্ধ্যায় খুলনা-রাজশাহীর মধ্যকার ম্যাচে যারা হারবে তাদের বিপক্ষে কোয়ালিফায়ার খেলবে তারা।

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের এলিমেনেটর ম্যাচে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ওভার শেষে আট উইকেট হারিয়ে ১৪৪ রান তোলে ঢাকা। ওপেনিংয়ে নেমে মুমিনুল আউট হন ৩১ রান করে। এছাড়া ১৩ বলে ২৫ রান করেন থিসারা পেরেরা।

তামিম ইকবাল, এনামুল হক, লুইস রিচ ও মেহেদী হাসান দুই অংকের ঘর ছোঁয়ার আগেই ফেরেন সাজঘরে। হাতে সেলাই নিয়েও ব্যাটিং করতে নেমে শাদাব খানকে সংগ দেন মাশরাফি। তিনি ২ বলে ০ রানে অপরাজিত থাকেন।

চট্টগ্রামের হয়ে দুটি করে উইকেট নেন রুবেল হোসেন ও নাসুম আহমেদ। চার ওভার বল করে ২৩ রানের খরচায় তিন উইকেট নেয়ায় ম্যাচসেরা হন রায়াদ এমরিট।

Sharing is caring!