চাকরী দিবো এই মনোভাব নিয়ে এগোতে হবে-মিজানুর রহমান

প্রকাশিত: ১১:১৪ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২২, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় রাজধানীর লা’ মেরিডিয়ান হোটেলে ‘জুনিয়র চেম্বার ইন্টারন্যাশনাল-জেসিআই বাংলাদেশ’ এর নবনির্বাচিত কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে ফরচুন সুজের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মিজানুর রহমান তরুণদের উদ্দেশে উৎসাহমূলক বক্তব্য দেন। এসময় তিনি বলেন, জেসিআই বাংলাদেশ তরুণদের দক্ষতা, জ্ঞান ও বুদ্ধির বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলছে। তরুণ উদ্যোক্তা তৈরীর জন্য আমি জেসিআই বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, আমি নিজেও একজন তরুণ উদ্যোক্তা ছিলাম। শত প্রতিকূলতা পেরিয়ে আমি আজকে একজন সফল শিল্পপতি। আমার শিল্প প্রতিষ্ঠানে এখন ৪৫০০ জন নিয়োজিত রয়েছেন। যুবসমাজকে আমাদের কাজে লাগাতে হবে। ব্যবসা, অর্থনীতি, চিকিৎসা, সংস্কৃতি, খেলাধুলা ও পরিবেশ প্রযুক্তিতে যুবসমাজকে সম্পৃক্ত করতে হবে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে মিজানুর রহমান বলেন, বৈদেশিক রিজার্ভ রেকর্ড ৪৩ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত হয়েছে। মাথা পিছু আয় এখন ৬০০ ডলার। ৫০০০ কোটি টাকা প্রণোদনায় চার মাসের মতো আমরা শ্রমিকদের যথাসময়ে বেতন ও বোনাস দিয়েছি,স্বাস্থ্য বিধি মেনে ফ্যাক্টরি পরিচালনার অনুমতি পেয়েছি। ৬ মাসের জন্য বাংলাদেশ শ্রম আইন ২০০৬ এর ধারা ১০০, ১০২ ও ১০৫ ফুটওয়ার ইন্ডাস্ট্রিজগুলোকে অব্যাহতি প্রদানের জন্য আমরা বিশেষ ভাবে উপকৃত হয়েছি। শিল্পপতি মিজানুর রহমান বলেন, সচেতন নাগরিক, সমাজের বৈপ্লবিক পরিবর্তনে জেএস আই সদস্যদের ভূমিকা অপরিসীম। আমি চাকরী করব না ভেবে আমি চাকরী দিবো এই মনোভাব নিয়ে এগোতে হবে।

তৈরী করতে হবে শক্তিশালী অর্থনীতির সমাজ। বিশ^নেতৃত্বে বাংলাদেশের প্রতিনিধি বৃদ্ধির আহবান জানিয়ে মিজানুর রহমান বলেন, বাংলাদেশকে বিশ^ দরবারে রোল মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে। এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বাংলাদেশের যুব সমাজ আরো বেশি অনুপ্রাণিত ও উজ্জীবিত হবে এটা আমার দৃঢ় বিশ^াস। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। এছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার শাহ আলী ফরহাদ, সুচিন্তা ফাউন্ডেশন’র চেয়ারপারসন মোঃ এ আরাফাত সহ জেসিআই বাংলাদেশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।