চাঁদমারিতে এক বাড়ি নিয়ে দুই পরিবারের টানা টানি : পাল্টা পাল্টি অভিযোগ

প্রকাশিত: ৯:১৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৩০, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আদালতে মামলা বিচারাধীন থাকাবস্থাতেই একটি বিরোধী বাড়ির মালামালসহ কক্ষ দখলের অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। তারা ভবনের ভোগ দখল দেখাতে প্রথমে মালিকানা দাবিকারী এক পক্ষের কক্ষের দরজায় তালার ওপর দ্বিতীয় তলা এবং দ্বিতীয় দফায় প্রথম পক্ষের তালা ভেঙে ফেলেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে দুই পক্ষই বরিশাল কোতয়ালী মডেল থানায় পাল্টা পাল্টি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার এবং গতকাল শুক্রবার সকালে নগরীর ১১ নম্বর ওয়ার্র্ডস্থ চাঁদমারী মাদ্রাসা সড়কে এই ঘটনা ঘটেছে। যা নিয়ে দুুই পক্ষের মধ্যেই চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।

জমি এবং ভবনের মালিকানা দাবিদার জাহাঙ্গীর আলমের ছেরে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের পানি শাখার পাম্প অপারেটর মো. নিলয় পারভেজ রুবেল জানান, ‘১৯৯২ সালে তার বাবা জাহাঙ্গীর আলম চাঁদমারী মাদ্রাসা রোডের আব্দুল খালেক এর নিকট থেকে আমমোক্তার মূলে ২ ইউনিটের চার তলা ভবনের একটি বাড়ি ক্রয় করেন। সেই থেকেই তারা ওই ভবন এবং জমি ভোগ দখল করে আসছেন।

তবে এর চার বছর পরে জাহানারা বেগম, মাহবুবুর রহমান বাবলু এবং শিরিন সুলতানা একই ওই জমির মালিকানা দাবি করেন। যা নিয়ে বিরোধ চলমান রয়েছে। এর প্রেক্ষিতে চলতি বছরের গত ১৯ জুলাই ওই পক্ষের দলিল বাতিল চেয়ে বরিশাল সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে মামলা করেন নিলয় পারভেজ রুবেল। এতে জাহানারা বেগম, মাহবুবুর রহমান বাবলু, শিরিন সুলতানা ও জমির দাদা আব্দুল খালেকের ছেলে আব্দুল হালিমসহ ছয় জনকে বিবাদী করা হয়েছে।

আদালত ওই মামলায় বিবাদীদের বিরুদ্ধে সমন জারি করার আদেশ দেন। এমনকি বিবাদীদের আগামী বছর অর্থাৎ ২০২১ সালের ২৪ জানুয়ারি আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। গত ২৭ অক্টোবর সমনের চিঠি গ্রহণ করেছেন বিবাদী মাহবুবুর রহমান বাবলু।

বাদী নিলয় পারভেজ রুবেল অভিযোগ করেছেন, ‘আমরা জমির ভোগ দখলে। এমনটি মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে। তাই বিবাদীরা ষড়যন্ত্রমূলকভাবে জমি তাদের ভোগ দখল বোঝাতে গত বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে আমাদের একটি কক্ষে তিন লক্ষাধিক টাকার মালামালসহ তালা ঝুলিয়ে দেয়। যে কক্ষে আমি এবং আমার মা বসবাস করতাম। ওই কক্ষের দরজায় আমাদেরও একটি তালা ছিলো। সেটি শুক্রবার সকালে কোন এক সময় বিবাদীরা ভেঙে ফেলেছেন বলে অভিযোগ বাদীর। এ সংক্রান্ত বিষয়ে বৃহস্পতিবার কোতয়ালী থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন বলে জানান তিনি।

অভিযোগ প্রসঙ্গে বিবাদী মাহবুবুর রহমান বাবুল এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘কোন কিছু নিজের দাবি করতে হলে সে জন্য প্রমাণ থাকতে হয়। কিন্তু বসবাস সূত্রে মালিকানা দাবি করা যায় না। যারা মালিকানা দাবি করে মামলা করেছে তাদের কাছে কোন প্রমাণ নেই। তবে প্রমাণ ছাড়া আদালতে মামলা হয় কিভাবে এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি এড়িয়ে গিয়ে বলেন, ‘এ প্রসঙ্গে আপনাকে নয়, আদালতেই জবাব দিব’। তাছাড়া বিষয়টি নিয়ে তারাও থানায় অভিযোগ এবং কাগজপত্র জমা দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন মাহবুুবুর রহমান বাবুল।

Sharing is caring!