চরফ্যাশনের বিভিন্ন স্পটে জমজমাট জুয়ার আসর : নীরব থানা প্রশাসন

প্রকাশিত: ৬:৩০ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৬, ২০২০

চরফ্যাশন প্রতিনিধি ::

ভোলা জেলার চরফ্যাশন উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের পাড়া মহল্লায় চলছে জমজমাট জুয়ার আসর। তিন তাস, কাইট, হাজারী, ক্যারমসহ বিভিন্ন আইটেমের জুয়ার আসরে লাখ লাখ টাকার কারবার চলে। ক্লাব, রাজনৈতিক দলের অঙ্গ সংগঠনের অফিস, সমিতির অফিস, মার্কেট ও দোকান ঘরে এসব আসরে তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী, এলাকার মাস্তান, পেশাদার ছিনতাইকারী, ছিঁচকে চোর থেকে শুরু করে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা এমনকি দিনমজুরও অংশগ্রহণ করেন।

এলাকায় জুয়ার আসরকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে একাধিক মাদকের স্পট। চলছে নির্বিঘ্ন মাদক বেচাকেনা। উঠতি বয়সীরা জুয়া ও নেশায় আসক্ত হয়ে পড়ছে। এ নিয়ে অভিভাবকরা উদ্বিগ্ন। আবার জুয়ার আসরকে ঘিরে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের আনাগোনাও বেড়ে যায়।

একাধিক ভুক্তভোগী এবং স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, থানা পুলিশকে ম্যানেজ করে জুয়ার আসর চলে বলে এ নিয়ে অভিযোগ করে কোনো প্রতিকার মেলেনি। বরং কেউ জুয়ার আসর নিয়ে মুখ খুললে এলাকার মাস্তানরা হুমকি দেয় ও নানান ভাবে ঝামেলা করে।

উপজেলার দক্ষিণ আইচা থানার নজরুল নগর ইউনিয়নের বজলু বাজার সংলগ্ন ও দুলারহাট থানার আবদুল্ল পুর ইউনিয়নের শ্রমিকলীগের নেতা কাসেমের নেতৃত্বে ফকিরহাটের ফকির বাড়ির বাগানসহ বিভিন্ন স্পটে এ জুয়ার আসর বসে।

জুয়ার আসরে অনুসন্ধান করে পাওয়া যায়, এ এলাকায় জুয়ার আসর বসে রাত-১০ টা থেকে শুরু করে ভোর ৪ টা পর্যন্ত। এবং দক্ষিণ আইচা থানা, দুলারহাট থানা সহ বিভিন্ন স্পটে এই জুয়ার আসর বসে। এসব আসরে তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী থেকে শুরু করে ছিনতাইকারী, ছিঁচকে চোর, পকেটমার, মলমপার্টির সদস্য এমনকি দিনমজুররাও অংশ নেয়। প্রতিদিন লাখ লাখ টাকার কারবার হয় এসব আসরে।

Sharing is caring!