গৌরনদীতে ১৫টি অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দিল প্রশাসন

প্রকাশিত: ৬:৪৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২১

গৌরনদী প্রতিনিধি ॥ সোমবার দুপুরে বরিশালের গৌরনদীতে পাকা সড়কের পাশের সরকারি খাল দখল করে নির্মাণাধীন ১৫টি পাকা অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দিয়ে উচ্ছেদ করেছে উপজেলা প্রশাসন। গৌরনদী উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিপিন চন্দ্র বিশ্বাস এর নির্দেশে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ আরিফুর রহমান প্রিন্স এর নেতৃত্বে থানা পুলিশ ও প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ নির্মাণাধীন ওই সকল পাকা অবৈধ স্থাপনাগুলোকে গুড়িয়ে দিয়ে উচ্ছেদ করেন।

 

এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে, বার্থী গ্রামের প্রভাবশালী মোফাজ্জেল মোল্লা সম্প্রতি বার্থী-ভাল্লুকসী পাকা সড়কের পাশের সরকারি খাল দখল করে ১৫টি পাকা দোকান ঘর নির্মাণের কাজ শুরু করেন। এতে চলতি ইরি-বোরো মৌসুমে ওই খাল দিয়ে পানির প্রবাহ বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ ইরি-বোরো চাষীরা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে একাধিক মৌখিক অভিযোগ করেন। অভিযোগ পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিপিন চন্দ্র বিশ্বাস মোফাজ্জেল মোল্লাকে মৌখিক ভাবে তার অবৈধ স্থাপনা নির্মাণের কাজ বন্ধের নির্দেশ দেন। ওই নির্দেশ অমান্য করে মোফাজ্জেল মোল্লা তার অবৈধ পাকা দোকান ঘরগুলো নির্মাণের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন।

 

খবর পেয়ে গৌরনদী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে সোমবার দুপুরে স্থানীয় প্রশাসন দখলদারের নির্মাণাধীন পাকা স্থাপনাগুলো ভেঙে গুড়িয়ে দিয়ে সরকারি খালটি অবৈধ দখল থেকে মুক্ত করে। গৌরনদী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ আরিফুর রহমান প্রিন্স জানান, আমরা বার্থী খাল থেকে শুরু করলাম। এখন থেকে পর্যায়ক্রমে উপজেলার সকল সরকারি খালগুলোকে মেপে খালের যায়গায় নির্মিত অবৈধ স্থাপনা একে একে উচ্ছেদ করা হবে।