গৌরনদীতে বিয়ের প্রলোভনে যুবতীকে ধর্ষণ : যুবক গ্রেফতার

প্রকাশিত: ৭:০৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৪, ২০২০

গৌরনদী (বরিশাল) প্রতিনিধি ॥ বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বাটাজোর বন্দরের ভাড়াটিয়া বাসায় বসবাসরত এক যুবতীর (২৭) বাসায় ঢুকে তাকে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগে থানা পুলিশ বৃহস্পতিবার রাতে পিরোজপুর জেলার স্বরূপকাঠী উপজেলা থেকে মোঃ জুয়েল কাজী (৩৬) নামের যুবককে গ্রেফতার করেছে।

গৌরনদী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ তৌহিদুজ্জামান জানান, পার্শ্ববর্তী আগৈলঝাড়া উপজেলার ছয়গ্রাম এলাকার এক যুবতী গৌরনদী উপজেলার বাটাজোর বন্দরের একটি ভাড়া বাসায় বসবাস করেন। কিছুদিন পূর্বে একই উপজেলার বেলুহার গ্রামের পূর্ব পরিচিত কিরন কাজীর বখাটে ছেলে জুয়েল কাজী (৩৬) ওই যুবতীর বাসায় ঢুকে বিয়ের প্রলোভনে তার সাথে সামাজিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন। এক পর্যায়ে বিয়ের প্রলোভনে ফেলে বখাটে জুয়েল ওই বাসাই যুবতীকে একাধিক বার ধর্ষণ করেন। এ ভাবে কিছুদিন যাওয়ার পরে যুবতী বিয়ের জন্য চাপ দিলে জুয়েল অস্বীকৃতি জানান।

এ ঘটনায় ধর্ষিতা যুবতীর মা বাদী হয়ে বখাটে জুয়েল কাজীকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে গত ৮ মার্চ গৌরনদী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের ঘটনা জানতে পেরে বখাটে জুয়েল গা-ঢাকা দেন।

এ মামলার তদন্তভার ন্যস্ত করা হয় থানার এসআই সাধন কুমার মন্ডলের ওপর। তিনি মোবাইল ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে বখাটে জুয়েল কাজীর অবস্থান নিশ্চিত হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে স্বরূপকাঠী থানা পুলিশের সহযোগিতায় স্বরূপকাঠী উপজেলা সদরের বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে সেখান থেকে বখাটেকে গ্রেফতার করেন। গ্রেফতারকৃত বখাটে জুয়েল কাজীকে শুক্রবার বিকেলে বরিশাল অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।