খাদ্য অধিকার আইন প্রণয়নের দাবিতে বরিশালে গণজমায়েত

প্রকাশিত: ৬:৫৬ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৮, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ॥

দেশের সকল নাগরিকের জন্য জীবিকার নিশ্চয়তা, খাদ্য ও পুষ্টি অধিকার নিশ্চিতের জন্য খাদ্য অধিকার আইন প্রণয়নের দাবিতে বরিশাল নগরীতে গণজমায়েত ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বিশ্ব খাদ্য দিবস উপলক্ষে বেসরকারী উন্নয়ন সংগঠন প্রান্তজন এবং খাদ্য নিরাপত্তা নেটওয়ার্ক (খানি), বাংলাদেশ’র আয়োজনে রোববার সকাল ১০টা বরিশাল অশ্বিনী কুমার হল প্রাঙ্গণে এই কর্মসূচী পালিত হয়।

এসময় বক্তারা জানান, সংবিধানে খাদ্যকে জীবনধারণের মৌলিক চাহিদা হিসেবে চিহ্নিত করা হলেও ২০১৯ সালের বিশ্ব খাদ্য নিরাপত্তা সূচকে বাংলাদেশ ৮৩তম অবস্থানে রয়েছে।

বক্তারা দাবি করেন, গবেষকদের মতে করোনার লকডাউনে দেশের প্রায় ৯৮.৩ শতাংশ দরিদ্র মানুষের জীবনযাত্রা মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। প্রায় ৮৭ শতাংশ দরিদ্র মানুষ পর্যাপ্ত ও পুষ্টিকর খাদ্য সঙ্কটে ভুগেছে। এছাড়া বাংলাদেশ পরিসংখ্যান বলছে, দেশের পরিবারগুলোর আয় ২০.২৪ শতাংশ কমেছে।
তাই দেশের সকল মানুষের জীবিকা, সংস্কৃতিভেদে নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্য নিশ্চিত করার জন্য এখনই জাতিসংঘ কৃষি ও খাদ্য সংস্থার ভলেন্টারি গাইডলাইনের আলোকে দেশে খাদ্য অধিকার আইন প্রণয়ন করা জরুরি বলে জানান বক্তারা।

এই আইন প্রণীত হলে সকল মানুষের খাদ্য ক্রয়ের জন্য আয়, খাদ্যের যোগান এবং সংস্কৃতিভেদে নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্যের আইনী বাধ্যবাধকতা তৈরি হবে বলেও মানববন্ধনে বক্তারা জানিয়েছেন।

সচেতন নাগরিক কমিটির সভাপতি অধ্যাপক শাহ-সাজেদা বেগমের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ম্যাপ’র নিবাহী পরিচালক শুভংকর চক্রবর্তী, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ বরিশাল জেলার সাধারণ সম্পাদক পুষ্প চক্রবর্তী, নারী সমাজ কর্মী অধ্যাপিকা শিবানী চৌধুরী, ক্যাব’র সমন্বয়কারী রনজিত দত্ত, ভিবিডিএস এর নির্বাহী পরিচালক আব্দুল গফফার খান, আরোহী এর নির্বাহী পরিচালক এ.টি.এম খোরশেদ আলম, চন্দ্রদ্বীপ ডেভেলপমেন্ট সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক জাহানারা বেগম স্বপ্না ও দুলাল বনিক।

Sharing is caring!