কুয়াকাটায় ইটভাটার ট্রলিতে সড়কের সর্বনাশ

প্রকাশিত: ১:৩৪ অপরাহ্ণ, জুন ২৯, ২০২০

কুয়াকাটা প্রতিনিধি ॥ কুয়াকাটা সৈকতের বিকল্প সড়ক আলীপুর-চাপলীবাজারের রাস্তাটি অনেক আগেই ইটভাটার ট্রলি গাড়ি সর্বনাশ করে রেখেছে। ছয় চাকার দানব নামে খ্যাত ট্রলিগাড়ি দিনরাত কুয়াকাটার অদূরবর্তী পুনামাপাড়া গ্রামের তিনটি ইটভাটা থেকে ইট পরিবহন করায় সড়কটি খানাখন্দে পরিণত হয়। নতুন করে ওই সড়কে নির্মাণাধীন ৫টি স্লুইজগেটের কাজ চলমান থাকায় সড়ক পথে পরিবহন যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। পাঁচ ইউনিয়নের লক্ষাধিক মানুষের যোগাযোগের মাধ্যম আলীপুর-চাপলীবাজারের এই গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি ইতোমধ্যে প্রায় বন্ধ হবার পথে। ফলে নৌ-পথে যোগাযোগ রক্ষার চেষ্টা চলাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

সরেজমিনে গেলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন, প্রতিদিন ওইসব ট্রলি গাড়ি ইটসহ বিভিন্ন নির্মাণ সামগ্রী নিয়ে এই সড়ক পথে যাতায়াত করতে গিয়ে নির্মাণাধীন স্লুইজগেটে আটকা পড়ে থাকে। এই বর্ষা মৌসুমে খানাখন্দের সাথে মাটি ও কাদাযুক্ত হয়ে গোটা সড়ক পিচ্ছিল ও ঝুঁকিপূর্ণ রয়েছে। পায়ে হেঁটে নিত্য দিনের কাজ করতে হচ্ছে শ্রমজীবী মানুষসহ নানা পোশার মানুষদের। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়ছেন বয়স্ক, মহিলা ও শিশুরা। চিকিৎসা নিতে পারছেন না নবজাতকসহ প্রসূতি মায়েরা।

এসব বিষয়ে কথা হয় পানি উন্নয়ন বোর্ডের ৪৮নং পোল্ডারের এসও তুহিনের সাথে। তিনি বলেন, বেড়িবাঁধ উন্নয়নে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নের স্লুইজগেট নির্মাণ ও সড়ক উন্নয়নের প্রকল্প চলমান রয়েছে। চীনা একটি প্রতিষ্ঠান এ উন্নয়নের কাজ করছে। করোনা দুর্যোগে কাজে স্থবিরতা দেখা দিয়েছে। ফলে জরুরী ব্যবস্থায় সড়কটি সচল রাখার উদ্যোগ নিতে হবে।

কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু হাসনাত মো. শহীদুল হক বলেন, উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ যেহেতু চলমান রয়েছে, সেক্ষেত্রে নতুন কোন প্রকল্প নেবার সুযোগ নেই।

Sharing is caring!