কাঠালিয়ায় বিষ দিয়ে মাছ নিধনের অভিযোগ

প্রকাশিত: ১০:৫২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৪, ২০২০

আক্কাস সিকদার, ঝালকাঠি প্রতিনিধি ॥

কাঠালিয়ার চেচরিরামপুর গ্রামে শত্রুতা করে একটি বড় পুকুরে বিষ দিয়ে প্রায় দুই লাখ টাকার মাছ নিধনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ক্ষতিগ্রস্ত পুকুর মালিকের অভিযোগ, তার আপন ভাই আল-আমিন খান ঈর্ষান্বিত হয়ে এ জঘন্য কাজ করেছেন। গত বুধবার রাতের যে কোন সময় পুকুরে বিষ প্রয়োগের ঘটনা ঘটে । এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগী ফারুক খান।

পুকুর মালিক মো. ফারুক খান অভিযোগ করেন, পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া দক্ষিণ চেচরি গ্রামের প্রায় দশকাঠা জমিতে পুকুর কেটে বেশ কয়েক বছর যাবত বিভিন্ন প্রজাতির মাছ চাষ করছিলাম। এ বছরও আমি ওই পুকুরে রুই, চায়না পুঁটি, গ্রাসকার্প, মিনারকার্পসহ বিভিন্ন প্রজাতির ষাট হাজার টাকার মাছ ছাড়ি। মাছ প্রায় ৬ থেকে ১২ ইঞ্চি লম্বা হয়েছিল।

বৃহস্পতিবার সকালে দেখি আমার পুকুরের সব মাছ মরে ভেসে উঠেছে। মৎস্য অফিসের লোকজন বলেছেন বিষ দিয়ে মাছ মেরে ফেলা হয়েছে। আমার আপন ছোট ভাই ঈর্ষান্বিত হয়ে পুকুরের মাছ নিধন করেছে বলে আমার ধারণা। আমি এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

অভিযোগের বিষয়ে আল আমিন খান বলেন, আমি বিষ দিয়ে মাছ মারিনি। আমার মনে হয় আমার ভাইয়ের স্ত্রী মাকসুদা বিষ দিয়ে মাছ মেরে আমার ওপর দোষ চাপাচ্ছে।