কলেজছাত্রকে হত্যা করে মোটরসাইকেল ছিনতাই

প্রকাশিত: 3:40 PM, July 5, 2019

নাটোরের বড়াইগ্রামে আড়াই বছরের শিশু ভাগ্নের সামনে বুকে পিস্তল ঠেকিয়ে গুলি করে এক কলেজছাত্রকে হত্যা করেছে ৩ দুর্বৃত্ত।তিন হত্যাকারী এ সময় নিহতের ব্যবহৃত একটি পালসার মোটরসাইকেল ছিনতাই করে নিয়ে গেছে।

শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে উপজেলার নগর ইউনিয়নের মোকিমপুর গ্রামের বটতলা মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।নিহত আল আমিন (১৮) বড়াইগ্রাম উপজেলার নগর ইউনিয়নের মোকিমপুর গ্রামের শাহাদত হোসেনের একমাত্র ছেলে ও খলিসাডাঙ্গা কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র।

নগর ইউপি চেয়ারম্যান নীলুফা ইয়াসমিন ডালু জানান, উপজেলার মোকিমপুর গ্রামের শাহাদত হোসেনের কলেজ পড়ুয়া ছেলে আল আমিন তার চাচাত ভগ্নিপতির পালসার মোটরসাইকেল নিয়ে স্থানীয় কয়েন বাজারে মাছ কেনার জন্য রওনা হয়।নিজ গ্রামের বটতলা মোড়ে পৌঁছামাত্র পূর্ব থেকে একটি মোটরসাইকেল নিয়ে অবস্থান করা তিনজন যুবক ইশারা করে তার গতিরোধ করে। এ সময় ওই তিন যুবক আল আমিনকে শার্টের কলার ধরে তার বুকের বাম পাশে এক রাউন্ড গুলি করে রাস্তায় ফেলে মোটরসাইকেলটি নিয়ে চলে যায়।

এ সময় আল আমিনের সঙ্গে থাকা তার আড়াই বছর বয়সী ভাগ্নে অক্ষত রয়েছে। পরে এলাকাবাসী আল আমিনকে উদ্ধার করে বনপাড়া পাটোয়ারী হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।এলাকাবাসীর ধারণা মোটরসাইকেলে ছিনতাইয়ের জন্য এই ঘটনা ঘটেনি। শুধু মোটরসাইকেল ছিনতাই করতে হলে তার পায়ে গুলি করলেই চলতো কিন্তু হত্যাকারীরা পরিকল্পিতভাবে অবস্থান নিয়ে তার বুকের বাম পাশে একটি মাত্র গুলি করে তাকে হত্যা করেছে এবং মোটরসাইকেল নিয়ে স্থান ত্যাগ করেছে।

বড়াইগ্রাম থানার ওসি দিলীপ কুমার দাস বলেছেন, ঘটনার তদন্ত চলছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর আধুনিক হাসপাতালে পাঠানো হবে। এখনই আমরা অভিযুক্তদের আটকের চেষ্টা শুরু করেছি। রাতেই হত্যা মামলা দায়ের করা হবে।

Share Button