কলাপাড়া পৌরসভার নির্বাচন কাল : সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন

প্রকাশিত: ৭:২৭ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২১

মেজবাহউদ্দিন মাননু, কলাপাড়া ॥ দেশের বিস্ময়কর উন্নয়নের জনপদ পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার পর্যটন শহর কলাপাড়া পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন রে‍াববার। নির্বাচনকে ঘিরে বিরাজ করছে উৎসবমুখর পরিবেশ। কনকনে শীত উপেক্ষা করে এতোদিন ননস্টপ প্রচার চালিয়েছেন সকল প্রার্থী। এ নির্বাচনে মেয়র পদে লড়ছেন চারজন। আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের বর্তমান মেয়র বিপুল চন্দ্র হাওলাদার, বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের সাবেক মেয়র হাজী হুমায়ুন সিকদার, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) জগ প্রতীকের দিদার উদ্দিন আহমেদ মাসুম ব্যাপারী ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের হাতপাখা প্রতীকের মোঃ সেলিম মিয়া। এছাড়া সাধারণ কাউন্সিলর পদে একজন নারীসহ ৩৭ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে লড়ছেন ১০জন প্রার্থী।

 

পৌন চার বর্গকিলোমিটার শহরটি ঝোলানো পোস্টারে পোস্টারে ছেয়ে গেছে। সুষ্ঠু, অবাধ নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে বাপক নিñিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে। থাকছে ১০টি কেন্দ্রসহ নির্বাচনী এলাকার নিরাপত্তা নিশ্চিতে চার শতাধিক পুলিশ, দুই প্লাটুন বিজিবি, ৩০ জন র‌্যাব সদস্য। নয়জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট থাকবেন আইন-শৃঙ্খলা কার্যকর নিয়ন্ত্রণে। ১২ হাজার ৮৯১ জন ভোটার অধ্যুষিত প্রথম শ্রেণির এ পৌরসভার নাগরিকরা এখন চেয়ে আছেন কে হবেন আগামির মেয়র। লড়াইটা কখনও ত্রিমুখি হওয়ার কথা ভাবছেন ভোটাররা; আবার দ্বিমুখি লড়াইয়ের আভাসও দিচ্ছেন। কিন্তু কেউ প্রকাশ্যে মুখ খুলছেন না। এই প্রথম ইভিএমএ অনুষ্ঠিত হচ্ছে এ পৌরসভার ভোট।

 

১৯৯৭ সালের পহেলা মার্চ গঠিত কলাপাড়া পৌরসভায় রয়েছে ২৯ টি মহল্লা। কাগজে-কলমে জনসংখ্যা প্রায় কুড়ি হাজার। কিন্তু বাস্তবে প্রায় ৩৫ হাজার। ২০১৫ সালে এ পৌরসভাটি প্রথম শ্রেণিতে উন্নীত হয়। আওয়ামী লীগ, বিএনপি এবং স্বতন্ত্র বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থীরা প্রত্যেকেই জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী রয়েছেন। নৌকা প্রতীকের বিপুল হাওলাদার জানান, পায়রা বন্দর ঘেঁষা এ পৌরসভার উন্নয়নে সরকারের মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে ভোটাররা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নৌকাকে বেছে নিবেন। তিনি বিজয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। আবার জগ প্রতীকের দিদার উদ্দিন মাসুম ব্যাপরী জানান, তাকে সুষ্ঠুভাবে নির্বাচনি কোন প্রচারণা চালাতে দেয়া হয়নি। তার কর্মী-সমর্থককে মারধর করা হয়েছে। বাড়িঘরে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালানো হয়েছে। তারপরও সুষ্ঠু ভোটে তিনি জয়ী হওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। বিএনপি প্রার্থীও অভিযোগও রয়েছে একই ধরনের। তবে সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান হবে আজ, রবিবার ভোটের মধ্য দিয়ে। উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্র্নং অফিসার মোঃ আব্দুর রশীদ জানান, অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের লক্ষ্যে সকল প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।