এয়ারপোর্ট থানাধীন গাজীপুরে তিন বোনকে কুপিয়ে-পিটিয়ে জখম

প্রকাশিত: ১২:১৮ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২১

 

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরিশাল এয়ারপোর্ট থানাধীন গাজীপুর এলাকায় জমি বিরোধের জের ধরে তিন বোনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। বুধবার সকাল ১১ টায় নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন মানিক শিয়ালীর মেয়ে সুমা আক্তার, বিউটি ও হাফিজা বেগম। বর্তমানে তারা গুরুতর অবস্থায় বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আহতদের স্বজন সাইদুল জানান, দীর্ঘদিন সাইদুল ও তার পরিবারের পৈত্রিক জমি নিয়ে প্রতিপক্ষ কদম আলীর ছেলে জামাল ও তার পরিবারের সাথে বিরোধ চলে আসছে।
সাইদুলদের জমি জোরপূর্বক জবর দখল করার চেষ্টা চালান জামাল ও তার সহযোগীরা। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে দ্বন্দ্ব বিরাজমান।
ঘটনার দিন সকাল ১১ টায় সাইদুলের বোন সুমি আক্তারের সাথে জামাল ও তার সহযোগীদের দ্বন্দ্ব হয়। এরই জের ধরে একপর্যায়ে জামাল ও তার স্ত্রী সীমা, ভাই আবুল ও আবুলের স্ত্রী সুরাইয়া, তার মেয়ে সাথী ছেলে রাহাত সহ অজ্ঞাত কয়েকজন পরিকল্পিতভাবে সুমা আক্তার কে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত করেন। তাকে বাঁচাতে বোন হাফিজা ও বিউটি আসলে তাদেরকেও এলোপাতাড়ি পিটিয়ে রক্তাক্ত করেন জামাল সহ অন্যান্য সহযোগীরা।
স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে তাৎক্ষণিক শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করেন।
এদের মধ্যে সুমা আক্তার এর অবস্থা আশঙ্কাজনক। তার মাথায় ধারালো অস্ত্রের কোপে মারাত্মক জখম হয়েছে। তবে অবস্থার অবনতি হলে যেকোনো সময় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা যেতে পারে বলে জানিয়েছেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।
এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে স্বজনরা জানান।