এক ধর্ষক, ২৩ ধর্ষিতা; আড়াই ঘণ্টা ধরে জবানবন্দি নিলেন বিচারক

প্রকাশিত: 4:15 PM, August 28, 2019

মার্কিন ধনকুবের জেফরি ইপস্টেইনের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগের ব্যাপারে জবানবন্দি দিতে মঙ্গলবার ২৩ জন নারী আদালতে উপস্থিত হন। যুক্তরাষ্ট্রের জেলা জজ আদালতের বিচারক রিচার্ড বারম্যান খোলামেলাভাবে শুনানির জন্য রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী, ইপস্টেইনের আইনজীবী এবং ইপস্টেইনের বিরুদ্ধে অভিযোগকারীদের কথা বলার সুযোগ দেন।

গত ১০ আগস্ট জেফরি ইপস্টেইন আত্মহত্যা করার কারণে তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ খারিজ করে দেওয়ার আগে গতকালের শুনানিটি ছিল শেষ পদক্ষেপ। জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবারই অনেক নারী প্রথমবারের মতো নিজেদের অভিযোগ ক্রিমিনাল আদালতে জানাতে পেরেছেন। অনেক নারীই দাবি করেছেন, তাদের অভিযোগের ব্যাপারে যেন তদন্ত সাপেক্ষে সিদ্ধান্তে আসা হয়।

ভার্জিনিয়া রবার্ট জেফরি নামের এক নারী অভিযোগ করেছেন, তার যখন কেবল ১৮ বছর বয়স; ওই সময় জেফরি ইপস্টেইন তার বন্ধুদের সঙ্গে বিছানায় যেতে ওই নারীকে বাধ্য করেছেন। সেই নারীর দাবি, (আত্মহত্যার কারণে) পাওনা মিটে যায়নি। এটা (বিচারকার্য) চলতে থাকা দরকার। কারণ, তিনি (অভিযুক্ত) একা এসব করেননি, আমরা ভুক্তভোগীরা সেটা জানি।

সারাহ র‌্যানসাম নামের আরেক নারীর অভিযোগ, তাকে দিয়েও যৌন ব্যবসা করিয়েছেন ইপস্টেইন। এই নারীও অনুরোধ জানিয়েছেন, এই মামলা যেন চালিয়ে যাওয়া হয়।

ধর্ষণের অভিযোগ ওঠার পর গত ১০ আগস্ট আত্মহত্যা করেন জেফরি ইপস্টেইন। এর আগে ২০০৮ সালে ফ্লোরিডার আদালতে হালকা মাত্রার অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন জাফরি। কিন্তু রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীর পদক্ষেপের ব্যাপারে নিউইয়র্কের আইনজীবীরা বেজায় চটেছেন। ফলে শেষাবধি জেফরি মারা যাওয়ার পর সিদ্ধান্ত হয়, তার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছে, ওই ব্যাপারে খোলামেলাভাবে শুনানি হবে।

Share Button