একটি দেশের সাফল্য নির্ভর করে তরুণ আগুয়ানদের ওপর- বিএমপি কমিশনার

প্রকাশিত: ১০:৫৩ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশে (বিএমপি) কর্মরত পুলিশ পরিবারের মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে ‘বাংলাদেশ পুলিশ মেধাবৃত্তি-২০১৯ এর ক্রেস্ট, সম্মাননাপত্র ও সম্মানী বিতরণ করা হয়েছে।
মঙ্গলবার সকাল ৯টায় নগরীর বান্দ রোডস্থ চাঁদমারী মাদ্রাসা সড়কে পুলিশ অফিসার্স মেসে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে ৭ জন কৃতী শিক্ষার্থীর হাতে ক্রেস্ট, সম্মাননাপত্র ও সম্মানী তুলে দেন বিএমপি কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান।

 

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এক আলোচনায় প্রধান অতিথি বলেন, ‘শুধুমাত্র পুঁথিগত বিদ্যা নয় বরং দেশপ্রেমিক নাগরিক হিসেবে দেশ ও দশের কল্যাণে নিজেকে নিয়োজিত করার নৈতিকতা ও মানসিকতা নিয়ে সুশিক্ষিত হতে হবে। তিনি বলেন, ‘শিক্ষাঙ্গনে মেধা ও যোগ্যতার স্বাক্ষর রেখে তোমরা তোমাদের বাবা-মা তথা পুলিশ পরিবারের সবাইকে সম্মানিত করেছ। সমাজের কাছে দেশের কাছে আমাদের মাথা উঁচু করেছ। তোমাদের জন্য আমরা গর্বিত। তাই বাংলাদেশ পুলিশের পক্ষ থেকে তোমাদের প্রতি রইল আন্তরিক স্নেহ, ভালোবাসা ও শুভেচ্ছা।

 

বিএমপি কমিশনার আরও বলেন, ‘প্রাথমিক সাফল্য বড় বড় সাফল্যের দ্বার খুলে দেয়। ভালো করার অদম্য ইচ্ছা নিয়ে তোমাদের এগিয়ে যেতে হবে। বিশ্বায়নের যুগে, প্রযুক্তির যুগে খারাপ দিকগুলোকে বর্জন করে ভালো দিকগুলোকে গ্রহণ করে এগিয়ে যেতে হবে। একটি দেশের সামগ্রিক সাফল্য নির্ভর করে তোমাদের মত তরুণ উদীয়মান মেধাবী প্রতিশ্রুতিশীল আগুয়ানদের ওপর। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ভিশন ২০৪১ বাস্তবায়নের মাধ্যমে একটি উন্নত সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়ার মূল চালিকাশক্তি তোমরা।’
শাহাবুদ্দিন খান বলেন, ‘যাঁরা জনকল্যাণে সর্বদা নিয়োজিত তাদের কল্যাণ সাধনের জন্য সরকার তথা বাংলাদেশ পুলিশ প্রধান নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। বর্তমানে দেশেল সর্বাধুনিক হাসপাতাল রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতাল। পর্যায়ক্রমে দেশের প্রতিটি জেলা ও বিভাগীয় শহরে এ ধরনের হাসপাতাল নির্মাণ করা হবে। বরিশালসহ দেশের ৮টি বিভাগে ক্যাডেট কলেজের ন্যায় স্কুল স্থাপন করা হবে।

 

সম্মাননা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার প্রলয় চিসিম। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন- দক্ষিণ বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মো. মোকতার হোসেন, ট্রাফিক বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার, উত্তর বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মো. খাইরুল আলম, ক্রাইম, অপারেশন অ্যান্ড প্রসিকিউশন বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার খাঁন মুহাম্মদ আবু নাসের, গোয়েন্দা (ডিবি) বিভাগের উপ-কমিশনার মো. মনজুর রহমান প্রমুখ।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ পুলিশ মেধাবৃত্তি-২০১৯ এর ক্রেস্ট, সম্মাননাপত্র ও সম্মানী বিতরণী অনুষ্ঠান প্রতিবছর পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছিল। তবে এ বছর বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের জন্য এ বছর পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের পরিবর্তে পুলিশের স্ব স্ব ইউনিটে অনুষ্ঠিত হয়েছে।