একটা শান্তি স্থাপন, মসজিদ স্থাপনের সমান-বিএমপি কমিশনার

প্রকাশিত: ১০:৪৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০২১

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান বলেছেন, ‘সমাজে একটা শান্তি স্থাপন করা মসজিদ স্থাপনের সমান। আপনি যে-ই হোননা কেন, এমন কোন কাজ করতে পারবেন না যা সামাজিক বিশৃঙ্খলার কারণ বা অন্যের শান্তি বিঘœ হতে পারে। এমন কোন কাজ বরদাস্ত করা হবে না। বুধবার সকালে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের (বিএমপি) কোতয়ালী মডেল থানা চত্বরে ‘ওপেন হাউজ ডে’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি’র বক্তৃতায় তিনি এ হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিএমপি’র দক্ষিণ বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মো. মোকতার হোসেন।

এসময় বিএমপি কমিশনার আরও বলেন, ‘আমরা আইনের দাস, আইনের বাহিরে কোন কিছু করার অধিকার নেই। আদালতের রায় ছাড়া কাগজ-কলম দেখে রায় দেয়ার অধিকার আমাদের নেই। কেউ কারো দখলকৃত সম্পত্তিতে আদালত প্রক্রিয়া ব্যতীত জোরপূর্বক প্রবেশ করতে পারবে না। অনেক বিষয় আমাদের আওতায় না থাকলেও ফৌজদারি অপরাধ দানাবাধার আগেই তা দমন করতে আমরা জনগণের পাশে আগুয়ান হয়ে কাজ করে থাকি।

বিএমপি কমিশনার শাহাবুদ্দিন খান বলেন, ‘আমরা সর্বোচ্চ সৎসাহস দেখিয়ে সেবাগ্রহীতা ও সেবাপ্রদানকারীদের জবাবদিহিতামূলক এই মতবিনিময়ের আয়োজন করেছি। ন্যায় বিচার এর সুফল পেতে সুনির্দিষ্ট তথ্যসহ সর্বস্তরের নাগরিকদের এই ওপেন হাউজ ডে’তে উপস্থিতি ও সহযোগিতা কাম্য।

দোরগোড়ায় নির্ভেজাল সেবা নিশ্চিত তথা বিট এলাকায় সামাজিক শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে সংশ্লিষ্ট বিট অফিসারকে আরও বেগবান হয়ে কাজ করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আগামী ১৬ জানুয়রি আইজিপি স্যারের নেতৃত্বে সারা বাংলাদেশের বিটে সাইবার ক্রাইম প্রতিরোধে একটা বিশেষ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

তারই ধারাবাহিকতায় বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের সমগ্র বিটে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। আরও ন্যায়ভিত্তিকভাবে আমাদের কর্মকাণ্ড পরিচালিত হচ্ছে কি-না আমরা শীর্ষ কর্মকর্তাগণ নিয়মিত পর্যবেক্ষণ করছি, আপনাদের অংশীদারত্ব, মতামত পরামর্শে সমৃদ্ধ হয়ে একটি নিরাপদ নগরী উপহার দেয়া সম্ভব মর্মে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

‘ওপেন হাউজ ডে’তে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএমপি’র অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার প্রলয় চিসিম। এছাড়াও বিএমপি’র দক্ষিণ বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, কোতয়ালী মডেল থানার সহকারী কমিশনার, অফিসার ইনচার্জ এবং পরিদর্শকসহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের সুশীল সমাজের প্রতিনিধি ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।