উপকূলে আবারও নিষিদ্ধ মাছ ধরা

প্রকাশিত: 6:55 PM, September 18, 2019

ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ নিধন রোধে প্রতিবছরের মতো এবারও ৯ থেকে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত ২২ দিন উপকূলীয় এলাকায় সব ধরনের মাছ ধরা বন্ধ থাকবে। সেই সাথে সারা দেশে ইলিশ আহরণ, পরিবহন, মজুদ, বাজারজাতকরণ ও ক্রয়-বিক্রয় নিষিদ্ধ থাকবে।

ইলিশের প্রজনন ক্ষেত্রের চারটি পয়েন্টে পরিবেষ্টিত ৭ হাজার বর্গকিলোমিটার উপকূলীয় এলাকার সব নদ-নদীতে নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে। পয়েন্ট চারটি হচ্ছে- মিরসরাই ও চট্টগ্রামের মায়ানি, তজুমদ্দিন ও ভোলার পশ্চিম সৈয়দ আওলিয়া, কুতুবদিয়া ও কক্সবাজারের উত্তর কুতুবদিয়া এবং কলাপাড়া ও পটুয়াখালীর লতা চাপালী পয়েন্ট।

প্রতিবছর আশ্বিন মাসের প্রথম উদিত চাঁদের পূর্ণিমার আগের চারদিন, পরের ১৭ দিন এবং পূর্ণিমার দিনসহ মোট ২২ দিনের এ নিষেধাজ্ঞা ২০১৭ সাল থেকে জারি রয়েছে। তবে ২০১১ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত ১১ দিন এবং ২০১৫ সালে এ নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ ছিল ১৫ দিন।

নিষেধাজ্ঞা ভঙ্গ করলে ১ থেকে ২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা জরিমানা অথবা উভয় দণ্ড দেয়ার বিধান রয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ইচ্ছা অনুযায়ী দেশের জনগণের পুষ্টি পূরণ ও সমুদ্রসম্পদের যথাযথ সংরক্ষণসহ মৎস্যসম্পদ বৃদ্ধি এবং মা ইলিশ ও জাটকা নিধনের বিরুদ্ধে ব্যাপক গণসচেতনতা সৃষ্টির আহ্বান জানান। তিনি কারেন্ট জালসহ অবৈধভাবে মৎস্য নিধনকারীদের শাস্তির আওতায় আনার ওপর জোর দেন।

Share Button