উজিরপুরে হাতুড়ে ডাক্তারের অপারেশন ও টেস্ট বাণিজ্য!

প্রকাশিত: ১০:০৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২, ২০২০

রাহাদ সুমন, বানারীপাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধি ॥

বরিশালের উজিরপুর উপজেলার শিকারপুর বন্দরে সঞ্জয় কুমার রায় নামের এক গ্রাম্য চিকিৎসকের বিরুদ্ধে অপারেশন ও টেস্ট বাণিজ্যের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে প্রতারিত

হচ্ছেন চিকিৎসা নিতে আসা গ্রামের সহজ সরল মানুষ। এছাড়া হাতুড়ে চিকিৎসায় রোগীদের বড় ধরনের শারীরিক ক্ষতি এমনকি মৃত্যু ঝুঁকিও রয়েছে।
সরেজমিন দেখা গেছে, উজিরপুর উপজেলার শিকারপুর বন্দরে গ্রাম্য চিকিৎসক সঞ্জয় কুমার রায় নিজের নামের পাশে বিভিন্ন জটিল রোগের অভিজ্ঞতার সাইনবোর্ড লাগিয়ে গ্রামের সাধারণ মানুষকে চিকিৎসা দেয়ার নামে প্রতারণার মাধ্যমে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন।

বুধবার দুপুরে গ্রাম্য চিকিৎসক সঞ্জয়ের কাছে চিকিৎসা নিতে আসা তানজিলা বেগম (৩০) জানান, গত এক মাস পূর্বে সঞ্জয় তার কন্যার নাকে পলিপাস অপারেশন করেছেন। তাতে তার প্রায় তিন হাজার টাকা খরচ হয়েছে। এখন তিনি নিজেই ঘাড় ব্যথা নিয়ে এসেছেন। তাকে ইসিজি ও রক্ত পরীক্ষা দেওয়া হয়েছে। এ টেস্ট দুটি সঞ্জয়ের ডায়াগনস্টিক সেন্টারে করানো হয়েছে এবং তিনিই রিপোর্ট দেখেছেন। এ জন্য তাকে ৯৫০ টাকা দিতে হয়েছে।

শিকারপুর বন্দরের একাধিক ব্যবসায়ী জানান, সঞ্জয় রায় একজন গ্রাম্য চিকিৎসক হয়ে দীর্ঘদিন ধরে স্পর্শকাতর রোগের চিকিৎসা দিচ্ছেন। এ ব্যাপারে উপজেলা প্রশাসনকে জানানো হলেও রহস্যজনক কারণে কেউ ব্যবস্থা নিচ্ছে না।

এ প্রসঙ্গে উজিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শওকত আলী বলেন, গ্রাম্য চিকিৎসকের অপারেশন কিংবা টেস্ট দেওয়ার সুযোগ নেই। এ বিষয়ে যদি কেউ লিখিত অভিযোগ করেন তাহলে তদন্ত সাপেক্ষে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Sharing is caring!