উজিরপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের সংঘর্ষে আহত ১১


Deprecated: get_the_author_ID is deprecated since version 2.8.0! Use get_the_author_meta('ID') instead. in /home/ajkerbarta/public_html/wp-includes/functions.php on line 4861
প্রকাশিত: ৯:৫২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১২, ২০২০

উজিরপুর প্রতিনিধি ॥ বরিশালের উজিরপুরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সংঘর্ষে ইউপি সদস্য, কলেজ ছাত্র, ব্যবসায়ী সহ ১১জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে।

অভিযোগ ও আহত সূত্রে জানা যায়, উপজেলার শোলক ইউনিয়নের কচুয়া গ্রামের মৃত মোবারক ঢালীর ছেলে সিদ্দিকুর রহমান ঢালী(৩৫) গংদের সাথে পার্শ্ববর্তী দত্তেশ্বর গ্রামের ইউপি সদস্য নুরুল হক সরদার গংদের দীর্ঘদিন যাবৎ জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। বিরোধীয় জমি নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে বরিশাল আদালতে ৪২/২০২০ একটি মামলা হয়েছিল। সে মামলায় সিদ্দিকুর রহমান ঢালী গংদের পক্ষে রায় হয়।

রায় পেয়ে সিদ্দিকুর রহমান গংরা সেনেরহাট বাজার সংলগ্ন জমিতে ভবন নির্মাণ করতে গেলে ১১ আগষ্ট বিকেল সাড়ে ৫টায় ইউপি সদস্য নুরুল হক সরদার (৬০), রিয়াজুল হক রাজু(২৬), শাহিন বেপারী(৩৮), শাকিল (২২)সহ একদল ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী বাহিনী প্রকাশ্যে ধারালো দেশীয় অস্ত্রসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। হামলায় কলেজ ছাত্র সফিক ঢালী(২৩), ইয়াছিন ঢালী(৪০), জাহিদ গোমস্তা(৩৮) ও সিদ্দিকুর রহমান ঢালী(৩৫), খালেক ঢালী(৫৫), মালেক ঢালী(৪০), রায়হান সরদার(২৮) গুরুতর আহত হয়েছেন।

এর মধ্যে ধামুরা ডিগ্রি কলেজের ডিগ্রি পড়ুয়া ছাত্র সফিক ঢালীকে ইউপি সদস্যস্যের সন্ত্রাসী বাহিনী ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথায় কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম এবং বাম পা ভেঙ্গে দেয়। এ ছাড়াও সংঘর্ষে আহত হয় ইউপি সদস্য নুরুল হক সরদার, শাহীন বেপারী, কলেজ ছাত্র রিয়াজুল ইসলাম, ফয়সাল বেপারী। আহতরা উজিরপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ব্যাপারে ব্যবসায়ী সিদ্দিকুর রহমান ঢালী জানান, আদালতের রায় পেয়ে আমাদের ভোগ দখলীয় জমিতে ভবনের কাজ করতে যাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে ঐ সন্ত্রাসীরা আমাদের উপর হামলা চালায়।

এমনকি আমাদের পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থলে না থাকা সত্ত্বেও তাদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযুক্ত নুরুল হক সরদার জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয় এবং দুই পক্ষের লোকজনই আহত হয়েছে। এ ব্যাপারে উজিরপুর মডেল থানায় উভয় পক্ষের অভিযোগ দায়ের হয়।

অফিসার ইনচার্জ মোঃ জিয়াউল আহসান জানান, উভয় পক্ষের অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।