উজিরপুরের সান্টু মোল্লাকে পুনরায় ইউপি সদস্য হিসেবে দেখতে চায় এলাকাবাসী

প্রকাশিত: ৮:১৯ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৭, ২০২১

মহসিন মিঞা লিটন, উজিরপুর প্রতিনিধি ॥ বরিশালের উজিরপুরের শোলক ৩নং ওয়ার্ডে বিশিষ্ট সমাজসেবক, দানবীর, শিক্ষানুরাগী, সদালাপী, ধর্মপরায়ণ, হাস্যোজ্জ্বল, গরীব দুখী মানুষের প্রিয় আস্থাভাজন সান্টু মোল্লাকে পুনরায় ইউপি সদস্য হিসেবে দেখতে চায় এলাকাবাসী। তিনি ৫ বছর ধরে সুনামের সাথে ওই ওয়াডের্র ইউপি সদস্য’র দায়ীত্ব পালন করে আসছেন। উন্নয়নে তার বিকল্প কোন প্রার্থীকে ভাবতে পারছেন না ভোটাররা। তিনি দায়ীত্বরত থাকা অবস্থায় গরীব দুখীদের মাঝে ভিজিডি,ভিজিএফ,মাতৃত্বকালীন ভাতা, বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতাসহ সরকারের সকল ধরনের সাহায্য সহযোগিতা সঠিক ভাবে যোগ্য পাত্রে অন্ন দান করেছেন। তার বিরুদ্ধে কোন অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ নেই।

এক নামে অসহায়দের বান্দব বলে সুপরিচিত হয়েছেন সান্টু মোল্লা। আসন্ন শোলক ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ইউপি সদস্য হিসেবে তাকে নিয়ে পুনরায় ২য় বারের মত নির্বাচিত করার জন্য ইতিমধ্যে জল্পনা কল্পনা শুরু হয়েছে ভোটারদের মধ্যে। এলাকায় উন্নয়নের স্বার্থে তার কোন বিকল্প প্রার্থী খুঁজে পাচ্ছেনা এলাকার জনগণ।

 

তিনি প্রতিদিন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট প্রার্থনা করছেন এবং ব্যাপক সাড়া পেয়েছেন। তিনি জন সমর্থনে এগিয়ে রয়েছেন। অবাধ সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলে পুনরায় শত ভাগ বিজয় লাভ করবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এমনকী মহামারী করোনার প্রকোপ মোকাবেলায় বিশেষ অবদান রেখেছেন তিনি। দিন রাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে জনগণের কাছে সরকারী অনুদান পৌঁছে দিয়ে মানবতার ফেরীওয়ালা হিসেবে সুপরিচিত হয়েছেন। তার কার্যকলাপ ও সরকারের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার জন্য তাকে এলাকার ভোটাররা পুনরায় ভোট প্রদান করে ২য় বারের মত নির্বাচিত করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তিনি শিক্ষিত, সৎ, মার্জিত, ভদ্র স্বভাবী হওয়ায় তার পক্ষে ইতিমধ্যে ভোট প্রার্থনা ও দোয়া কামনা করছেন এলাকার অধিকাংশ ভোটার।

 

এক প্রবীণ শিক্ষক জানান, সান্টু মোল্লা মেম্বার হওয়ায় এলাকা মাদক,সন্ত্রাস,জঙ্গিবাদ মুক্ত এবং রাস্তা, ঘাট, স্কুল, মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। তিনি আবারো নির্বাচিত হলে সকল অপরাধ মুক্ত থাকবে এবং সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় অব্যাহত থাকবে। তিনি পুনরায় নির্বাচিত হলে উপকৃত হবে জনগণ এবং উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছে এলাকাবাসী।