ঈশ্বরগঞ্জে কাজ না করেই অর্থ আত্মসা‍ৎ : প্রকল্প বাতিল

প্রকাশিত: ১২:২৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৬, ২০২০

রিদওয়ান আহমেদ রিজন, ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ॥ ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে কাজ না করেই অর্থ আত্মসাতের সেই প্রকল্প বাতিল করা হয়েছে।
উত্তোলনকৃত অর্থ ফেরত দিতে হবে বলে জানিয়েছেন জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিনা নাসরিন ।

উল্লেখ্য যে, উপজেলার বড়হিত ইউনিয়নের নওশতি বাজার জামে মসজিদের ঈদগাহ মাঠ উন্নয়নের জন্য ময়মনসিংহ জেলা পরিষদ (২০১৯-২০ অর্থ বছরে) একটি প্রকল্প নির্ধারণ করে। সেই প্রকল্পে ২ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। প্রকল্পটির সভাপতি করা হয় বড়হিত ইউনিয়নে ৪, ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী সদস্য রওশন আরাকে। কিন্তু প্রকল্পের কাজ শুরুর আগেই ইতোমধ্যে স্থানীয় এলাকাবাসী ও যুবসমাজ উদ্যোগ নিয়ে বিশিষ্ট্য প্রকৌশলী লুৎফুল্লাহেল মাজেদ বাবু’র কাছ থেকে ৪ লাখ টাকা অর্থ সংগ্রহ করে ঈদগাহ মাঠের কাজ শেষ করে ফেলে।

পরে জেলা পরিষদের বরাদ্দকৃত টাকায় কোন কাজ না করে গত ১৪জুন রাতের আধাঁরে ঈদগাহ মাঠের দেয়ালে জেলা পরিষদের নাম ফলক সাঁটিয়ে দেন প্রকল্প সভাপতি। পরদিন ভোরে ঈদগাহ মাঠে সরকারি নাম ফলক সাঁটানো দেখে বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন এলাকাবাসী। এমন পরিস্থিতিতে নাম ফলকটি সরিয়ে নিতে বাধ্যহন প্রকল্প সভাপতি। বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দেন স্থানীয় ইউপি সদস্য খায়রুল ইসলাম।

অভিযোগের প্রেক্ষিতে জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে প্রকল্প সভাপতিকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়। নোটিশের জবাব পাওয়ার পর জেলা পরিষদ প্রকল্পটি বাতিল ও প্রকল্পের বিপরীতে উত্তোলিত অর্থ ফেরত নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়।

ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিনা নাসরিন বলেন, স্থানীয়দের একটি অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রকল্প সভাপতিকে শোকজ করা হয়েছিলো। জবাবে তাদের জানানো হয়েছে- প্রকল্প অনুমোদন হওয়ার আগেই সেখানে ব্যক্তি উদ্যোগে কাজ হয়ে যায়। ওই অবস্থায় প্রকল্প বাতিল করা হয়েছে। বরাদ্দ অর্থ ফেরত নেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।

Sharing is caring!