আহত নারী এমপি হাসপাতালে ভর্তি, ১৯ আইনজীবীর নামে মামলা 


Deprecated: get_the_author_ID is deprecated since version 2.8.0! Use get_the_author_meta('ID') instead. in /home/ajkerbarta/public_html/wp-includes/functions.php on line 4861
প্রকাশিত: ৭:৪৬ অপরাহ্ণ, মার্চ ৬, ২০২১
বার্তা ডেস্ক ॥
দিনাজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির দুই গ্রুপের সংঘর্ষের প্রায় ৩০ ঘণ্টা পর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন সমিতির সদস্য ও সংরক্ষিত আসনের নারী এমপি জাকিয়া তাবাসসুম জুই। এদিকে সংঘর্ষের ঘটনায় জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ ১৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। গত শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হন জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি জাকিয়া তাবাসসুম জুই। দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) পারভেজ সোহেল রানা জানান, অসুস্থ বোধ করায় ও ব্যথা অনুভব করায় তিনি নিজে এসে ভর্তি হন। তবে তদন্ত বোর্ড গঠন করে আঘাতের বিষয়টি বোঝা যাবে। গত শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টায় এমপিকে দেখতে হাসপাতালে আসেন জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম। এসময় তিনি জানান, বৃহস্পতিবার আইনজীবী সমিতির সামনের সংঘর্ষে তিনি মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছেন। সেই সময় তিনি বিষয়টি টের না পেলেও সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তিনি মাথায় প্রচ- ব্যথা অনুভব করতে থাকেন। এছাড়াও তিনি বমি করেছেন বলে জেনেছেন। এদিকে আইনজীবী সমিতির সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা করেছেন সংঘর্ষে আহত আইনজীবী সারওয়ার আহমেদ বাবু। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় দায়ের করা মামলায় আসামি করা হয়েছে সমিতির সভাপতি অ্যাড. মাজহারুল ইসলাম সরকার, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, শামসুর রহমান পারভেজ, হযরত আলী বেলাল, খয়রাত আলী, মাহফুজুর রহমান বিপুল, মাহফুজ আলী, কবির বিন গোলাম চার্লি, অনিমেষ চন্দ্র রায়, সিফাত রহমান লিমন, আলাল, হেলাল ফারুক, শাওন, আকবর, রাজা, নবী, রবিউল ইসলাম রবি, খোকনসহ ১৯ জনকে। কোতোয়ালী থানার ওসি মোজাফফর হোসেন মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। উল্লেখ্য, কমিটির মেয়াদ বৃদ্ধি ও ৬ কোটি টাকার দুর্নীতিসহ ৯টি এজেন্ডা নিয়ে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় দিনাজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির কার্যকরী কমিটির সাধারণ সভা শুরু হয়। এসময় সমিতির সাবেক কমিটির নেতারা সভাস্থলে গিয়ে আপত্তি করেন ও সভা বন্ধ করতে বলেন। এক পর্যায উভয়ের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। বিকেল ৪টা পর্যন্ত দফায় দফায় সংঘর্ষে কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।