আল্লাহ্ ওয়ালা বান্দা হওয়ার জন্যই ছারছীনা দরবারের সৃষ্টি -ছারছীনার পীর ছাহেব

প্রকাশিত: ৯:০৪ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৩০, ২০২১

ছারছীনা সংবাদদাতা ঃ গতকাল বাদ মাগরিব হতে আরম্ভ হয়েছে ছারছীনা দরবার শরীফের মাঘ মাসের ঈছালে ছওয়াব মাহফিল। অত্র দরবার শরীফের প্রতিষ্ঠাতা পীর কুত্বুল আলম শাহ্সূফী হযরত মাওলানা নেছার উদ্দিন আহমদ (রহ.) এর ইন্তেকাল বার্ষিকী ১৮মাঘ কে স্মরণ করে এ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এ বৎসর তাঁর ৬৯তম ওফাত দিবস পালিত হচ্ছে। বাদ মাগরিব জিকিরের পর খতমে শবীনা অনুষ্ঠিত হয়। সারা রাত পাঁচ শতাধিক হাফেজ পাঁচ সহ¯্রাধিক লোকের উপস্থিতিতে পবিত্র কুরআন মজীদ তেলাওয়াত করেন। বাদ ফজর সকলের সম্মিলিত তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে শবীনা সমাপ্ত হয়। অত:পর সকাল এগারটা হতে বাংলাদেশ ছাত্র হিযবুল্লাহর কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্মেলন আরম্ভ হলে দলে দলে ছাত্র জনতা মিছিল নিয়ে সম্মেলনে যোগদান করে। পুরাতন স্টেইজে অনুষ্ঠিত সম্মেলন স্থল কানায় কানায় ভরে যায় বাংলাদেশ ছাত্র হিযবুল্লাহর নেতা ও কর্মীদের অংশ গ্রহণে। কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা এনায়েতুল্লাহ্ ফয়রাভীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মোঃ নাছরুল্লাহ্, কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মাওলানা মোঃ আবু আক্কাস ও মহাসচিব মাওলানা বাহাউদ্দিন মুস্তাফী সহ বাংলাদেশ যুব হিযবুল্লাহর মহাসচিব মাওলানা রূহুল আমীন আফসারী, যুব হিযবুল্লাহর সভাপতি মাওলানা কাজী মফিজ উদ্দিন, বাংলাদেশ জমইয়াতে হিযবুল্লাহর কেন্দ্রীয় তা’লীমে তরীকত সম্পাদক মাওলানা মো. রূহুল আমিন ছালেহী বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ জমইয়াতে হিযবুল্লাহ্র নাযেমে আ’লা ড. মাওলানা সৈয়দ শরাফত আলী বলেন- আমরা ছারছীনা দরবার শরীফের ভক্ত ও মুরীদান। আমরা হানাফী সুন্নী মুসলমান। আমরা কোন রাজনীতির সাধে জড়িত নই। ইসলাহে নফস, ইসলাহে কওম ও ইসলাহে হুকুমাত আমাদের কর্মসূচি। আমরা সুন্নাত তরীকা মোতাবেক আমল করে আল্লাহ্ ওয়ালা ও আশেকে রাসূল হতে চাই। ছাত্রদিগকে কিশোর বয়স থেকে এই আদর্শে গড়ে তোলার জন্য বাংলাদেশ ছাত্র হিযবুল্লাহ্ দেশময় সাংগঠনিক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি ছাত্র হিযবুল্লাহর পতাকাকে সমুন্নত রাখতে সকলের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান। বাদ মাগরিব জিকির ও তা’লীমের পর আমীরে হিযবুল্লাহ্ ছারছীনা শরীফের আ’লা হযরত পীর ছাহেব কেবলা- সমবেত জনতাকে উদ্দেশ্য করে বলেন- অত্র দরবার শরীফের প্রতিষ্ঠাতা কুত্বুল্ আলম হযরত মাওলানা শাহ্সূফী নেছার উদ্দিন আহমদ (রহ.) একজন উচ্চ মর্তবার আশেকে রাসূল ছিলেন। তিনি সুন্নাত তরীকা অনুযায়ী আমলের প্রতি গুরুত্বারোপ করে এখানকার সকল প্রতিষ্ঠানের নামের সাথে দারুস্সুন্নাত শব্দটি যুক্ত করে ছাত্র-শিক্ষক, ভক্ত-মুরীদ ও আপামর জনতাকে খাঁটী মুসলমান ও আশেকে রাসূল বানানোর জন্য তাঁর জীবনকে উৎসর্গ করেছিলেন। তাই আমি নির্দি¦ধায় বলতে চাই “সুন্নাত তরীকা অনুযায়ী আমল করে করে আল্লাহ্ ওয়ালা বান্দা হওয়ার জন্যই ছারছীনা দরবারের সৃষ্টি।” সুতরাং আমাদিগকে এই লক্ষ্য উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে সতর্কতার সাথে চলতে হবে যাতে কোথাও যেন কোন বিদআতের অনুপ্রবেশ ঘটতে না পারে। হযরত পীর ছাহেব কেবলার এফতেতাহী ভাষণের পর ছারছীনা দারুস্সুন্নাত কামিল মাদরাসা ও ছারছীনা দারুস্সুন্নাত জামেয়ায়ে নেছারিয়া দীনিয়ার ছাত্রগণ সারা রাত ব্যাপী কেরাত, হামদ-না’ত, মরছিয়া ও ওয়াজ-বক্তৃতা পরিবেশন করেন।