আজকের বার্তায় সংবাদ প্রকাশের পর বানারীপাড়ার শিশু আব্দুল্লাহর পাশে জেলা প্রশাসক

প্রকাশিত: ৫:৪১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৬, ২০২০

রাহাদ সুমন, বানারীপাড়া প্রতিনিধি ॥

লিভার ও কিডনি রোগে আক্রান্ত বানারীপাড়ার সেই শিশু ‘আবদুল্লাহ’র জন্য মানবতার হাত প্রসারিত করে পাশে দাঁড়ালেন বরিশালের জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান। বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে শিশুটির জন্য সহায়তার স্ট্যাটাস দেখে বুধবার দুপুরে তিনি বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০ হাজার টাকার ওষুধ দিয়ে তাকে সহযোগিতা করেন।

এছাড়াও তিনি শিশুটির চিকিৎসার জন্য সমাজসেবা অধিদপ্তর হতে জটিল রোগের চিকিৎসার অনুকূলে ৫০ হাজার টাকা প্রদান করার প্রতিশ্রুতি দেন। অসুস্থ আব্দুল্লাহ বানারীপাড়া উপজেলার উদয়কাঠী ইউনিয়নের লবণসাড়া গ্রামের হতদরিদ্র দিনমজুর খলিল খানের শিশু পুত্র। সে বর্তমানে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। উন্নত চিকিৎসার অভাবে শিশুটির জীবনশংকার বিষয়টি আজকের বার্তায় সহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। জানাগেছে, ‘আবদুল্লাহ দীর্ঘ দিন ধরে লিভার ও কিডনি রোগে ভুগছেন। সন্তানের চিকিৎসার জন্য তার বাবা খলিল খানের যে সামর্থ্য ছিল তা ছেলের চিকিৎসা করাতে গিয়েই শেষ।

এখন তার পক্ষে আব্দুল্লাহর উন্নত চিকিৎসা করানো সম্ভব নয়। তাই সন্তানের চিকিৎসার জন্য মাদার অব হিউম্যানিটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সহ সমাজের বিত্তবানদের কাছে তিনি হাত পেতেছেন। ছেলেকে বাঁচাতে করুণ আকুতি জানিয়ে আর্থিক সহায়তার আবেদন জানিয়েছেন। যা বরিশাল জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমানের চোখে পড়ে।

৫ আগস্ট বুধবার দুপুরে তিনি জেলা প্রশাসনের প্রবেশন অফিসার সাজ্জাদ পারভেজের মাধ্যমে শিশুটির জন্য ১০ হাজার টাকার ওষুধের ব্যবস্থা করে দেন। এছাড়া শিশুটির চিকিৎসার জন্য সমাজসেবা অধিদপ্তর হতে জটিল রোগের চিকিৎসার অনুকূলে ৫০ হাজার টাকা প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান। পাশাপাশি তিনি শিশুটির চিকিৎসার জন্য সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন। শিশুটিকে বাঁচাতে সাহায্য পাঠানোর বিকাশ নম্বর খলিল খান- ০১৭৭৭০২১০০৫।

প্রসঙ্গত, এর আগে শিশু আব্দুল্লাহর চিকিৎসার জন্য মানবিকতার হাত প্রসারিত করে ১০ হাজার টাকা পাঠান জামালপুর জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি মাহবুবুর রহমান সজিব। এছাড়াও বিভিন্ন সহৃদয়বান ব্যক্তি শিশুটির চিকিৎসায় ৭ হাজার টাকা সহায়তা করেন।

Sharing is caring!