আজকের বার্তায় সংবাদ প্রকাশ : বাবুগঞ্জে সরিয়ে নেয়া হল টয়লেটের সাথে নির্মিত শহীদ মিনার

প্রকাশিত: ৯:০২ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২১

আরিফ হোসেন, বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ দৈনিক আজকের বার্তায় সংবাদ প্রকাশের পর অবশেষে বাবুগঞ্জে বিদ্যালয়ের টয়লেটের সাথে নির্মাণ করা শহীদ মিনারটি ভেঙে অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়েছে। জানা গেছে, উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাবুগঞ্জ উপজেলার ৬৬নং উত্তর ক্ষুদ্রকাঠী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সেপটিক ট্যাংকের পাশ থেকে সোমবার শহীদ মিনার ভেঙে সরিয়ে নির্মাণ কাজ করছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা জাহানারা পারভীন নিজের ইচ্ছামত সেপটিক ট্যাংকের পাশে শহীদ মিনারটি স্থাপন করেন গত বছরে। ভাষাসৈনিকদের স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণে এমন অবমূল্যায়নে এলাকায় চরম ক্ষোভ ও অসন্তোষ প্রকাশ পায়।

 

সেপটিক ট্যাংকের পাশে শহীদ মিনারের সংবাদটি গত ১৫ ফেব্রুয়ারি “দৈনিক আজকের বার্তায়” টয়লেটের সাথে শহীদ মিনার শিরোনামে প্রকাশিত হবার পর টনক নড়ে উপজেলা প্রশাসনের। এরই ধারাবাহিকতায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ আমীনুল ইসলাম তড়িৎগতিতে উপজেলা শিক্ষা অফিসার আকবর কবীরকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়াসহ প্রতিবেদনের নির্দেশ দেন। উপজেলা শিক্ষা অফিসার আকবর কবীর সরেজমিন তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পেয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকাকে সেপটিক ট্যাংকের পাশ থেকে শহীদ মিনার ভেঙে ২১ শে ফেব্রুয়ারির আগে অন্যত্র স্থাপনের নির্দেশ দিলে সোমবার শহীদ মিনার ভেঙে বিদ্যালয় মাঠের অন্যত্র স্থাপন শুরু করতে দেখা গেছে।

এলাকাবাসী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আমীনুল ইসলামের এই মহতী উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন।

এদিকে উপজেলা শিক্ষা অফিসার আকবর কবীর বলেন, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা সেপটিক ট্যাংকের পাশে কেন শহীদ মিনার স্থাপন করেছেন সে বিষয়ে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন।