আজকের বার্তায় ফটো ফিচার প্রকাশ : ভিক্ষুক ফজরজান’র পাশে বিএমপি কমিশনার

প্রকাশিত: ১২:৩৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৪, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দেশের সর্বাধিক প্রচারিত আঞ্চলিক দৈনিক আজকের বার্তায় ফটো ফিচার প্রকাশের পরে স্বজনহীন ভিক্ষুক ফজরজান বিবির পাশে এসে দাঁড়ালেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান-বিপিএম (বার)।

তিনি ওই বৃদ্ধাকে খুঁজে বের করে তাকে ফলমূল, খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ তুলে দিয়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার পুলিশ কমিশনারের পক্ষে স্টাফ অফিসার (সহকারী পুলিশ কমিশনার) আব্দুল হালিম ও কোতয়ালী মডেল থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মো. নুরুল ইসলাম বৃদ্ধা ফজরজান বিবিকে এই সহায়তা পৌঁছে দেন।

এর আগে মঙ্গলবার দৈনিক আজকের বার্তায় প্রথম পাতায় নগরীর পুলিশ লাইন্সের সামনে করোনা মহামারির মধ্যেও আটাত্তর বছর বয়সী বৃদ্ধা ফজরজান বিবি’র ভিক্ষাবৃত্তির করুণ চিত্র তুলে ধরা হয়। যার ফটো ক্যাপশন ছিল, “স্বজনহীন বৃদ্ধা ফজরজান বিবির কাছে করোনার চেয়েও পেটের ক্ষুধা নিবারণ বেশি গুরুত্বপূর্ণ। তাইতো মহামারির তোয়াক্কা না করে পেটের দায়ে যথারীতি ব্যস্ত ভিক্ষাবৃত্তিতে।”

ফটো ফিচারটি বিএমপি কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান এর নজরে আসলে তিনি ওই বৃদ্ধা ভিক্ষুকের পাশে দাঁড়ান এবং বাড়িয়ে দেন মানবতার হাত। বিএমপি কমিশনারের তাৎক্ষণিক এ প্রতিক্রিয়াকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সচেতন মহল।

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার কার্যালয় সূত্রে জানানো হয়েছে, ‘দৈনিক আজকের বার্তায় প্রকাশিত সংবাদ সূত্রে আটাত্তর বছরের স্বজনহীন ভিক্ষুক ফজরজান বিবিকে বিএমপি কমিশনার খুঁজে বের করার নির্দেশ দেন।

তার নির্দেশে মঙ্গলবার সকালে কোতয়ালী মডেল থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মো. নুরুল ইসলাম এর নেতৃত্বে পুলিশের টিম নগরীর কেডিসি কলোনির নামারচর বস্তি থেকে স্বজনহীন ভিক্ষুক ফজরজান বিবিকে খুঁজে আনেন।

পরে পুলিশ কমিশনারের পক্ষে বিএমপি’র সদর দপ্তরে কর্মরত সহকারী পুলিশ কমিশনার (স্টাফ অফিসার) মো. আব্দুল হালিম ফরজান বিবির হাতে ফলমূল, খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ তুলে দেন।

এছাড়াও করোনা কালে ভিক্ষাবৃত্তি স্বাস্থ্যঝুঁকি বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই ভিক্ষা না করা তথা রাস্তায় না বের হওয়ার শর্তে আটাত্তর বছরের স্বজনহীন ফজরজান বিবিকে খাদ্য সহায়তা দিয়ে যাবেন বলেও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বিএমপি কমিশনার শাহাবুদ্দিন খান।

এদিকে আজকের বার্তায় প্রকাশিত ফটো ফিচারের সূত্র ধরে বৃদ্ধা ভিক্ষুকের পাশে দাঁড়ানোয় আজকের বার্তা পরিবারের পক্ষ থেকে বিএমপি কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান, সহকারী পুলিশ কমিশনার আব্দুল হালিম এবং কোতয়ালী মডেল থানার ওসিসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা হল।

Sharing is caring!