আগৈলঝাড়ায় সরকারী খালে বাঁধ দিয়ে চলছে স্থাপনা নির্মাণ

প্রকাশিত: ৮:২৭ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২১

তপন বসু, আগৈলঝাড়া প্রতিনিধি ॥ আইন কানুনের তোয়াক্কা না করে হাজার হাজার কৃষক পরিবারকে সেচ সংকটের মুখে ফেলে নিজেদের স্বার্থের জন্য সরকারী খাল দখল করে পাকা স্থাপনা নির্মাণের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। দখলের এই উৎসব চলছে বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার বাগধা ইউনিয়নের আমবৌলা স্লুইজ গেট থেকে পশ্চিমের সীমান্তবর্তী গোপালগঞ্জ জেলার কোটালীপাড়া উপজেলার শুয়াগ্রামমুখি খালে।

 

ক্ষতিগ্রস্ত ভুক্তভোগী চাষীরা অভিযোগে জানান, বাগধা ইউনিয়নের আমবৌলা স্লুইজ গেট থেকে জয়রামপট্টি, নারায়নখানা হয়ে পশ্চিম দিকের শুয়াগ্রাম মুখি একমাত্র খাল দখল করে সেখানে পাকা স্থাপনা নির্মাণ কাজ চালিয়ে আসছে স্থানীয় নুরু হাওলাদার, আতিয়ার হাওলাদার ও আজিজুল হাওলাদারসহ কয়েকজন প্রভাবশালী। দখলদার নুরু হাওলাদার খালের পানি প্রবাহ বন্ধ করে পাকা স্থাপনা নির্মাণের কাজ শুরু করেছেন। খালের অপর দিকে স্থানীয় আতিয়ার হাওলাদার ও আজিজুল হাওলাদার খালের মাঝে পাইলিং করে বাঁধ দিয়ে বালু ভরাটের কাজ করে আসছে। দখলদারদের বাঁধের কারণে প্রবাহমান খালে পানি না পেয়ে বর্তমান সেচ মৌসুমে জমিতে সেচ দিতে পারছেন না সংশ্লিষ্ট এলাকার কৃষকেরা। ফলে বর্তমান বোরো মৌসুমে হাজার হাজার কৃষক তাদের জমিতে সেচ দিতে ব্যর্থ হয়ে আসছেন।

 

এ ব্যাপারে দখলদার নুরু হাওলাদার বলেন- এটাতো আর বাড়ি বানাচ্ছি না, দোকান ঘর তোলার জন্য কাজ শুরু করেছি।
উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ দোলন চন্দ্র রায় বলেন, বাঁধ বা দখলের বিষয়ে কেউ তাকে অবহিত করেনি। তিনি তার দপ্তরের লোক পাঠিয়ে খোঁজ নিয়ে নির্বাহী অফিসারের সাথে আলোচনা করে যথাযথ আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলেও জানান।