আগৈলঝাড়ায় এনজিও’র কর্মী ধর্ষণে মামলা : অভিযুক্ত ধর্ষক বরখাস্ত :  বাদীকে অব্যাহতি

প্রকাশিত: ৮:১৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৩, ২০২০

আগৈলঝাড়া সংবাদদাতা ॥

বরিশালের আগৈলঝাড়ায় এনজিও ব্যুরো বাংলাদেশ’র হিসাব রক্ষক কর্তৃক মাঠকর্মী ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষিতার মামলা দায়ের। ধর্ষিতার ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন। অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের ঘটনাস্থল পরিদর্শন।

বরিশাল কোতয়ালী থানার নমশুদ্র পাড়া এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা ও এনজিও ব্যুরো বাংলাদেশ আগৈলঝাড়া অফিসের মাঠকর্মী এক সন্তানের জননীর এজাহারের বরাত দিয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই তৈয়বুর রহমান জানান, এনজিও ব্যুরো বাংলাদেশ আগৈলঝাড়া উপজেলার ফুল্লশ্রী এলাকার ব্রাঞ্চ অফিসের কর্মসূচি সংগঠক (২৫) নারী {মাঠকর্মী}কে প্রায়ই বিভিন্ন রকমের কুপ্রস্তাব দিতেন একই ব্রাঞ্চের হিসাব রক্ষক মিজানুর রহমান (৩০)। বাদী তার কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় চলতি বছর ২২ জানুয়ারি বিকেল সাড়ে চারটায় বাদীকে অফিসে একা পেয়ে ব্রাঞ্চ ম্যানেজার কবিরুল ইসলামের রুমে নিয়ে জোর পূর্বক মিজানুর রহমান তাকে ধর্ষণ করেন।

অভিযুক্ত মিজানুর বাগেরহাট জেলার দোনা গ্রামের লেহাজ উদ্দিন শেখ এর ছেলে।  এজাহারের বরাত দিয়ে তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই তৈয়বুর রহমান আরও জানান, এর আগে ব্যুরো বাংলাদেশ এনজিও’র এরিয়া ম্যানেজার তাপস রায় চলতি বছর ১৮ জানুয়ারি বাদীকে অফিসে একা পেয়ে দুপুরে তার বিভিন্ন স্পশর্কাতর স্থানে হাত দিয়ে শ্লীলতাহানী করেন বলে অভিযোগ করেছেন। এরিয়া ম্যানেজার তাপস রায় বর্তমানে উজিরপুর অফিসে কর্মরত থেকে ওই এনজিও’র এরিয়া ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন।

২০আগস্ট (বৃহস্পতিবার) আগৈলঝাড়া থানায় উল্লেখিত দু’জনকে আসামী করে ওই এনজিও’র মাঠকর্মী (২৫) মামলা দায়ের করেন, ন-১২ (২০.০৮.২০২০)।

মামলা দায়েরের পরে শুক্রবার ধর্ষিতা এনজিও কর্মীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে পুলিশ।
তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই তৈয়বুর রহমান আরও জানান, গৌরনদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুর রব হাওলাদার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তার নির্দেশনা ও তত্ত্বাবধানে মামলার তদন্ত কার্যক্রম চলছে। আসামীদের গ্রেফতারে জোর প্রচেষ্টা চলছে।

ব্যুরো বাংলাদেশ আগৈলঝাড়া উপজেলা ব্রাঞ্চ ম্যানেজার কবিরুল ইসলাম বলেন, মামলা দায়ের করা তাদের ওই মাঠ কর্মী এলাকা থেকে অন্তত দুই লাখ টাকার উপরে উত্তোলন করে আত্মসাত করছে। তার বিরুদ্ধে অফিসে অডিট চলছে। অর্থ আত্মসাতের কারণে গত সপ্তাতে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। নিজের বাচার জন্য চাকুরী হারিয়ে তিনি হয়রানী করতেই মামলা দায়ের করেছেন। চাকুরীচ্যুত মাঠকর্মীর সাথে হিসাব রক্ষক অসৌজন্যমূলক আচরণের জন্য ওই মাঠকর্মী তার কাছে লিখিত অভিযোগ করায় হিসাব রক্ষক মিজানুর রহমানকে গত ১২জুলাই তিনি সাময়িক বরখাস্ত করেছেন বলেও জানান। অন্যদিকে মামলায় উল্লেখিত চলতি বছর ১৮ ফেব্রুয়ারি এরিয়া ম্যানেজার তাপস রায় আগৈলঝাড়া অফিসেই আসেন নি বলেও নিশ্চিত করেন তিনি।

এনজিও ব্যুরো বাংলাদেশ এর বরিশাল আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক আবুল বাশার সরদার বলেন, ওই মাঠকর্মী মাঠ থেকে টাকা তুলে অফিসে জমা দিতেন না। এভাবে তিনি পৌনে দুই লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছিলেন। একারণে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে নোটিশ দিলে তিনি আত্মসাত করা ওই পৌনে দুই লাখ টাকা অফিসে জমা দেন। দেশের তৃতীয় বৃহত্তম এনজিও হিসেবে ব্যুরো বাংলাদেশকে দাবি করে তিনি আরও বলেন, এটি একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান। অর্থ আত্মসাতের কারণে তাকে চূড়ান্ত বহিষ্কার করা হয়েছে। নিজের অপকর্ম ঢাকতে তিনি হয়রানীর জন্যই মামলা দায়ের করেছেন।

Sharing is caring!