আগৈলঝাড়ায় ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতীক চেয়েছেন ৬৮ প্রার্থী

প্রকাশিত: ৮:০৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২১, ২০২১

তপন বসু, আগৈলঝাড়া প্রতিনিধি ॥ আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বরিশালের আগৈলঝাড়ায় নৌকা প্রতীক চেয়ে এ পর্যন্ত ৬৮জন প্রার্থী তাদের আবেদনপত্র জমা দিয়েছেন। দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীন বর্তমান পাঁচ চেয়ারম্যানসহ উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, শ্রমিকলীগ, ছাত্র লীগের গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত নেতার সংখ্যাই বেশী। জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ এমপি’র নির্দেশনায় দলের জেলা সভাপতি বরাবরে স্থানীয় দলীয় নেতা কর্মীদের সাথে নিয়ে উৎসব মুখর পরিবেশে উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তরে দলীয় মনোয়ন প্রত্যাশীরা তাদের আবেদন জমা প্রদান করেন প্রার্থীদের জীবন বৃত্তান্ত গ্রহণের সময়ে জেলা আওয়ামী লীগ নেতা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রইচ সেরনিয়াবাত, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সুনীল কুমার বাড়ৈ, সাধারণ সম্পাদক আবু সালেহ মো. লিটনসহ দলের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারন সম্পাদক আবু সালেহ মো. লিটন জানান, দলের আহ্বানে ২০ জানুয়ারি পর্যন্ত উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে এ পর্যন্ত মোট ৬৯জন চেয়ারম্যান প্রার্থী আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক চেয়ে আবেদন করেছেন।

সাধারণ সম্পাদক আবু সালেহ মো. লিটন জানান, রাজিহার ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন- বর্তমান চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক ইলিয়াস তালুকদার, সাবেক তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এবং প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক তপন বসু, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি সাইদুল সরদার, আওয়ামীলীগ নেতা মতিউর রহমান, মান্নান ভুইয়া, আরিফ কাজী, সাইদুর রহমান সৈয়দ, দিলরুবা পরী, রাজিহার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হরেকৃষ্ণ হালদার, সাধারণ সম্পাদক মুরাদ সিকদার, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি জগদীশ ভক্ত, কাজী ইদ্রিস ও আকন মো. এনামুল হক।

বাকাল ইউনিয়নে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও বর্তমান চেয়ারম্যান বিপুল দাস, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি রমেশ চন্দ্র অধিকারী, সাধারণ সম্পাদক সহিদুল ইসলাম পাইক, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক অনিমেষ মন্ডল, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ফিরোজ সিকদার, যুবলীগ নেতা মামুন রাসেল ও বিমল বাড়ৈ, হাফিজা ইয়াসমিন, সূচিত্রা বালা, পংকজ মিত্র, দেবরাজ বাড়ৈ, আজিজুল মোল্লা টুটুল।

বাগধা ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা আমিনুল ইসলাম বাবুল ভাট্টি, আওয়ামী লীগ নেতা আবুল বাশার হাওলাদার বাদশা, মোশারফ হোসেন ছবি, বজলুল হক মন্টু, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ইউনুস আলী মিয়া, সাধারণ সম্পাদক বজলুর রহমান মন্টু, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাবেক সভাপতি এআর ফারুক বক্তিয়ার ও মিঠুন বিশ্বাস, সঞ্জয় বিশ্বাস, কামাল বক্তিয়ার, এসএম আজাদ।

গৈলা ইউনিয়নের প্রার্থীরা হলেন- বর্তমান চেয়ারম্যান শফিকুল হোসেন টিটু, সাবেক চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন খান, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুস সাত্তার মোল্লা, শফিকুল ইসলাম সকুল, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম চান, কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক রমনী কান্ত সরকার, কৃষকলীগ নেতা আনিস সেরনিয়াবাত, শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক ছরোয়ার দাড়িয়া, যুবলীগের সহ-সভাপতি আবদুল্লাহ লিটন, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মিন্টু সেরনিয়াবাত, কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি বরুণ বাড়ৈ, ছাত্রলীগ নেতা মাহামুদুল ইসলাম সাগর সেরনিয়াবাত, ছাত্রলীগ সাবেক সভাপতি কামরুজ্জামান সেরনিয়াবাত আজাদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সবুজ আকন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শরীফ ইলিয়াস, উত্তম সিমলাই ছাড়াও রমিজ মল্লিক, সাব্বির উদ্দিন সেরনিয়াবাত, আশ্রাব আলী সরদার, আতিকুর রহমান কাজল।
রতœপুর ইউনিয়নে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীরা হলেন বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা গোলাম মোস্তফা সরদার, সাবেক চেয়ারম্যান হোসনে আরা বেগম পেয়ারা, উপজেলা শ্রকিলীগ সভাপতি আবুল কাশেম সরদার, আওয়ামী লীগ নেতা শাহীন আলম টেনু, রেমন ভূইয়া, কাজী রিয়াজ, হুমায়ুন কবির কিবরিয়া, সরদার সিরাজুল ইসলাম, লিটন মাহমুদ, আল হাদী, শহিদুল ইসলাম খোকন, আ. রহিম শরীফ।