অবশেষে বাড়িতে আশ্রয় পেলেন রাস্তায় পড়ে থাকা আগৈলঝাড়ার সেই বৃদ্ধা

প্রকাশিত: ৪:১৫ অপরাহ্ণ, জুন ২৩, ২০২০

আগৈলঝাড়া সংবাদদাতা ॥ বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর পুলিশের সহায়তায় হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে অবশেষে স্বজনদের সাথে বাড়িতে আশ্রয় পেয়েছেন রাস্তার পাশে পড়ে থাকা আগৈলঝাড়ার আলোচিত ৭০ বছরের অসহায় সেই বৃদ্ধা দীপু বালা। পুলিশের সহায়তায় সোমবার হাসপাতালে ভর্তি হয়ে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা গ্রহণ শেষে গতকাল মঙ্গলবার সকালে বৃদ্ধা দীপু বালাকে তার ভাই ও তাদের স্বজনেরা হাসপাতাল থেকে বাড়ি নিয়ে গেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন হাসপাতাল প্রধান ডা. বখতিয়ার আল মামুন ও থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আফজাল হোসেন।

থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আফজাল হোসেন জানান, করোনা সন্দেহে শারীরিকভাবে অসুস্থ ৭০ বছরের বৃদ্ধা ফুফুকে সোমবার দুপুরে আগৈলঝাড়া-ঢাকা-পয়সারহাট আঞ্চলিক মহাসড়কের ফুল্লশ্রী বাইপাস বাস স্ট্যান্ডে মহাসড়কের পাশে ফেলে রেখে সটকে পড়েন ভাইয়ের ছেলে মিথুন সাহা। গণমাধ্যমকর্মীদের মাধ্যমে খবর পেয়ে তার (ওসি) নির্দেশে এসআই শাহজাহান রাস্তায় পড়ে থাকার চার ঘণ্টা পরে বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। তাৎক্ষণিক হাসপাতালে ছুটে যান ওসি মো. আফজাল হোসেন। হাসপাতালে গিয়ে নিঃসন্তান অসহায় বৃদ্ধা দীপু বালাকে ভর্তি করিয়ে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা প্রদান করা হয়। ওসির নির্দেশে সোমবার রাতে এসআই শাহজাহান আস্কর বাজারে বৃদ্ধার পরিবারকে খুঁজে বের করেন। সেখানে খোঁজ মেলে বৃদ্ধার পরিবারের স্বজনদের।

এদিকে রাতে বৃদ্ধাকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা প্রদান, খাদ্য, অষুধ ও আনুষঙ্গিক সহায়তা প্রদান করে হাসপাতাল ও পুলিশ প্রশাসন। সোমবার দুপরে সড়কের পাশে ফেলে যাওয়া ওই বৃদ্ধাকে চিকিৎসা প্রদান শেষে গতকাল মঙ্গলবার সকালে হাসপাতালের ছাড়পত্র নিয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি নিয়ে যান বৃদ্ধার ভাইয়ের ছেলে মিথুন সাহা। হাসপাতাল প্রধান ডা. বখতিয়ার আল মামুন জানান, বৃদ্ধাকে প্রয়োজনীয় সকল চিকিৎসা প্রদান ও অষুধ সরবরাহ করা হয়েছে। তার পরেও গতকাল মঙ্গলবার সকালে ছাড়পত্র দেয়ার আগে করোনা শনাক্তের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। শারীরিক অসুস্থতা কাটিয়ে ওঠা এবং নমুনা প্রদানের কারণে তাকে ১৪দিন হোম কোয়ারেন্টিনে রাখার নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

ওসি মো. আফজাল হোসেন বলেন, বৃদ্ধার পরিবারের স্বজনেরা তার সাথে ঘটে যাওয়া অমানবিক আচরণের জন্য ভুল স্বীকার করেছেন। হাসপাতাল থেকে তাকে বাড়ি নিয়ে গেছেন। বৃদ্ধার বিষয়ে পুলিশ সার্বক্ষণিক ওই বাড়ির খোঁজ খবর নেয়ার কথা জানিয়ে করোনায় তিনি সবাইকে মানবিক হবারও আহ্বান জানান। প্রসংগত, ৩-৪ বছর আগে স্বামী মারা যাবার পরে ৭০ বছরের নিঃসন্তান আস্কর গ্রামের বৃদ্ধা দীপু বালা বরিশাল কাঠপট্টি রোডের ধীরেণ সিকদারের বাসায় ঝি’য়ের কাজ করতেন। সেখানে কর্মরত অবস্থায় দুর্বলতা ও বার্ধক্য জনিত কারণে হঠাৎ অসুস্থ হন তিনি। গ্রামের বাড়িতে খবর দিলে ভাইয়ের ছেলে মিথুন সাহা বরিশাল থেকে সোমবার করোনা সন্দেহে বৃদ্ধা ফুফুকে বাড়ি আনতে গিয়ে আগৈলঝাড়া বাইপাস সড়কের বাসস্ট্যান্ডে নেমে সটকে পড়েছিলেন ভাইয়ের ছেলে মিথুন সাহা।