অপহরণ-ধর্ষণ মামলায় গৃহবধূর ১৪ বছরের কারাদণ্ড

প্রকাশিত: ১০:১৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৩১, ২০২১

মো. জিয়াউদ্দিন বাবু :: বরিশালে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় দ্বিতীয় আসামি মালেকা বেগম (২৫) নামের এক গৃহবধূকে ১৪ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সাথে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

 

রবিবার আসামির উপস্থিতিতে বরিশালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. আবু শামীম আজাদ এই দণ্ডাদেশ দিয়েছেন। দণ্ডিত মালেকা বেগম বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ কাজিরচর গ্রামের কামাল মৃধার স্ত্রী।

আদালতের স্টেনো কাওসার হোসেন টিটু মামলার নথির বরাত দিয়ে জানান, ‘২০১৩ সালের ১৯ জানুয়ারি কাজিরচরের রফিকুল ইসলাম বাদীর স্কুল পড়‍ুয়া মেয়েকে অপহরণের পরে ধর্ষণ করেন। এতে সহযোগিতা করেন মালেকা বেগম।

এই ঘটনায় ২২ জুন স্কুল ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে মেহেন্দিগঞ্জ থানায় রফিকুল ইসলাম ও মালেকা বেগমকে অভিযুক্ত করে মামলা দায়ের করেন। একই বছরের ১৮ আগস্ট ওই থানার এসআই মো. তরিকুজ্জামান আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

এদিকে, মামলাটি বিচারাধীন থাকাবস্থায় মৃত্যু হয় মামলার প্রধান আসামি রফিকুল ইসলামের। তাই ৬ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে মামলার দ্বিতীয় আসামি মালেকা বেগমকে ১৪ বছরের কারাদণ্ড সাথে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়েছে।