আজকের বার্তা | logo

৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৯শে মে, ২০১৯ ইং

লাশের সন্ধানে ৪১ বছর, বাবার হত্যাকারীদের বিচার  চেয়ে আদালতে সন্তান

প্রকাশিত : মে ১০, ২০১৯, ১৪:৪০

লাশের সন্ধানে ৪১ বছর, বাবার হত্যাকারীদের বিচার  চেয়ে আদালতে সন্তান

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাবার লাশের সন্ধানে ৪১ বছর ধরে সরকারের বিভিন্ন মহলে ধর্না দিয়ে আসছেন বরিশালের সার্জেন্ট সাইদুর রহমান’র ছেলে মো. কামরুজ্জামান লেলিন। বাবার হত্যাকারীদের বিচার দাবি করে লেলিন গত ২৮ এপ্রিল উচ্চাদালতে রিট আবেদন করেছেন। লেলিন বলেন, বাবা সার্জেন্ট সাইদুর রহমানের ১৯৭৭ সালের ১৪ অক্টোবর ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে পাঠানো একমাত্র চিঠিই এখন আমাদের ভরসা। সেদিন বাবার পাঠানো মায়ের কাছের সেই চিঠিতে তিনি লিখেছিলেন, ‘‘সন্তানদের প্রতি খেয়াল রেখো আর আমার জন্য দোয়া করবে”। সেদিনের পর আর বাবার সাথে আমাদের কোন যোগাযোগ হয়নি। ১৯৭৮ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি বিমানবাহিনীর কমান্ডিং অফিসার (পাইলট) মীর ইদ্রিস আহম্মেদ এর প্রেরিত চিঠিতে আমাদের জানানো হয় বাবা আর বেঁচে নেই। তবে আজও তার লাশের কোন হদিস পাইনি আমরা। কারাগারে নির্মমভাবে হত্যার পর তাদের লাশ কোথায় কি করা হয়েছে তার সন্ধান আজও করে যাচ্ছেন লেলিন। ১৯৬৬ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে পাকিস্তান বিমান বাহিনীতে যোগদান করেন সার্জেন্ট সাইদুর রহমান। মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় বঙ্গবন্ধুর ডাকে সাড়া দিয়ে দেশে ফিরে দেশ মাতৃকার মুক্তির সংগ্রামে অংশ নেন সার্জেন্ট সাইদুর রহমান। তিনি ৯ নম্বর সেক্টরে মেজর (অব.) এমএ জলিলের নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। দেশ স্বাধীন হবার পর পুনরায় বাংলাদেশ বিমানবাহিনীতে যোগদান করেন এবং পদোন্নতি পেয়ে সার্জেন্ট হন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট দেশের ইতিহাসে কলঙ্কময় হত্যাকা-ের মধ্যদিয়ে নারকীয় ঘটনার জন্ম দিয়েছে ঘাতকরা।
১৯৭৭ সালের ২ অক্টোবর বিমান বাহিনীতে ঘটে যাওয়া ক্যু’র সময় ঘাতকদের হাতে আটক হন সার্জেন্ট সাইদুর রহমানসহ কয়েক হাজার সেনা ও বিমানবাহিনীর সদস্য। এরপর কারাগারে তাদের ওপর চলে ন্যাক্কারজনক নির্যাতন। এরপর থেকে কারাগারে চলে প্রহসনের বিচারের নামে নির্বিচারে সেনা ও বিমান বাহিনীর মেধাবী কর্মকর্তাদের হত্যা মিশন। হত্যার পর তাদের লাশ পরিবারের কাছে না দিয়ে বিপথগামী সেনারা গুম করেছিলো সেদিন। বিমানবাহিনীর হেডকোয়ার্টার থেকে মৃত্যুর খবর সম্বলিত ঠিঠি এলেও তার লাশ আসেনি। আর সেই থেকে সার্জেন্ট সাইদুর রহমান’র পরিবার তার লাশের জন্য সরকার ও বিভিন্ন দপ্তরে ধর্না দিয়ে আসছে। লাশতো দূরের কথা, হত্যার ঘটনায় আজও বিচার পায়নি তার পরিবার। সেদিন কারাগারে কি হয়েছিলো তা প্রকাশ ও বাবার হত্যাকারীদের বিচারে ট্রাইব্যুনাল গঠনের দাবি জানিয়ে সার্জেন্ট সাইদুর রহমান’র ছেলে মো. কামরুজ্জামান লেলিন বলেন, আমার নিরাপরাধ বাবাকে যারা সেদিন প্রহসনের ট্রাইব্যুনালের মাধ্যমে নৃশংসভাবে হত্যা এবং প্রমাণসহ তার লাশ গুম করেছিলো তাদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে হত্যার বিচার করার জন্য সরকারে কাছে দাবি জানাচ্ছি। এদিকে এই নারকীয় হত্যাকা-ের ঘটনার বিচার ও ক্ষতিপূরণ দাবি করে চলতি বছরের ২৮ এপ্রিল সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট ডিভিশনে একটি রিট দায়ের করেছেন সামরিক আদালতে মৃত্যুদ-প্রাপ্ত বিমানবাহিনীর সার্জেন্ট সাইদুর রহমানের ছেলে মো. কামরুজ্জামান লেলিন মিঞাসহ ৮৮ জন সেনা ও বিমানবাহিনীর সদস্য ও সন্তান। তারা ওই রিট আবেদনে সামরিক আদালতে মৃত্যুদ- দেয়া ১ হাজার ৪৫০ জন বিমান সেনার হত্যার বিচার ও যথাযথ ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন। হাইকোর্টের বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদের এর আদালতে রিটটি শুনানির জন্য রয়েছে।
Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।