আজকের বার্তা | logo

৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২০শে মে, ২০১৯ ইং

বরগুনায় ইয়াবা দিয়ে ব্যবসায়ীকে ফাঁসানোর অভিযোগ

প্রকাশিত : মে ১২, ২০১৯, ১৮:০২

বরগুনায় ইয়াবা দিয়ে ব্যবসায়ীকে ফাঁসানোর অভিযোগ

বরগুনা প্রতিনিধি ॥ বরগুনায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. ফরহাদ আকন এর বিরুদ্ধে আবারও ইয়াবা দিয়ে ব্যবসায়ী মো. বাচ্চুকে ফাঁসানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। অন্যান্য ব্যবসায়ীদের বিক্ষোভ মিছিল এবং বরগুনা-১ আসনের সংসদ সদস্যের হস্তক্ষেপে গভীর রাতে আটককৃত ব্যবসায়ীকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়েছেন। এর আগে উপ-পরিচালক ২০১৮ সালের ১৭ জানুয়ারি বেতাগী উপজেলার বকুলতলী গ্রামের আলতাফ প্যাদার ছেলে সিদ্দিককে ১ কেজি গাঁজা দিয়ে ফাঁসিয়ে ৮ হাজার টাকা ঘুষ নিয়েছিলেন। বিভিন্ন পত্রিকায় এ বিষয়ে খবর ছাপা হলে ঘুষের টাকা ফেরত দেন তিনি। জানা গেছে, শুক্রবার দুপুর ২টার দিকে বরগুনা পৌরসভার মাদ্রাসা সড়কে মেসার্স মাওয়া বীজ বিতানের মালিক মো. বাচ্চু মিয়ার দোকানে মুড়ির সঙ্গে ৪২ পিস ইয়াবা রেখে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. ফরহাদ আকনের নেতৃত্বে ব্যবসায়ী বাচ্চুকে আটক করা হয়। পরে তাকে থানায় সোপর্দ করে চালান দেওয়া হয়। মেসার্স মাওয়া বীজ বিতানের মালিক বাচ্চু মিয়া বলেন, শুক্রবার দুপুরের দিকে এক ব্যক্তি একটি মুড়ির পোঁটলা নিয়ে আমার দোকানে এসে ১ কেজি সার ক্রয় করেন। পরে মুড়ি এবং সার আমার দোকানের সামনে রেখে আরো কিছু মালামাল আনতে বাইরে যান। লোকটি যাওয়ার কিছুক্ষণ পরই ওই কর্মকর্তার নেতৃত্বে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের লোকজন আমার দোকানে হাজির হয়ে মুড়ির পোঁটলার মধ্যে ইয়াবা রয়েছে জানিয়ে আমাকে নিয়ে যান তাদের অফিসে। এ ঘটনায় শুক্রবার বরগুনা শহরে তাৎক্ষণিক বিক্ষোভ মিছিল বের করেন ব্যবসায়ীরা। রাতেই সকল দোকানপাট বন্ধ করে দেওয়া হয়। শহরে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে বরগুনা-১ আসনের সংসদ সদস্য ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু বরগুনার পুলিশ সুপার ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেন। পরবর্তীতে পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখার পর ব্যবসায়ী বাচ্চুকে শুক্রবার রাত ১২ টার সময় থানা থেকে মুক্তি দেয়। একই সঙ্গে ওই কর্মকর্তা চাপের মুখে মামলা প্রত্যাহার করে নেন। বরগুনা জেলা আ’লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা আলতাফ হোসেন বলেন, ফরহাদ আকন একজন অসৎ চরিত্রের লোক। তার বিরুদ্ধে এ জাতীয় অভিযোগের শেষ নেই। তাকে অনতিবিলম্বে বরগুনা থেকে বদলি করা উচিত। বরগুনা থানার ওসি আবির মোহাম্মদ হোসেন বলেন, আমার প্রথমেই সন্দেহ হওয়ায় মামলা গ্রহণ করিনি। তারপরও ওই কর্মকর্তা মামলা করেন। বরগুনা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক অভিযুক্ত ফরহাদ আকন বলেন, আমাদেরকে সোর্স ইনফর্ম করেছে সেই প্রেেিত ব্যবসায়ী বাচ্চু মিয়াকে আটক করা হয়। এ ব্যাপারে আর কিছু বলতে চাই না।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।