আজকের বার্তা | logo

৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৮ই জুন, ২০১৯ ইং

গুহায় মোদির ধ্যান নিয়ে টুইঙ্কেলের তিরস্কার!

প্রকাশিত : মে ২১, ২০১৯, ০০:০১

গুহায় মোদির ধ্যান নিয়ে টুইঙ্কেলের তিরস্কার!

সপ্তম দফার নির্বাচনী প্রচার শেষ করেই গত শনিবার ভারতের ‘কেদারনাথ’ সফরে যান দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কেদারনাথের গুহায় দীর্ঘক্ষণের জন্য তার ধ্যানে বসার ছবি ও ভিডিও এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নিজেও সেই ছবি পোস্ট করেছেন, যা নিয়ে শেষ দফার ভোটের আগে মোদির বিরুদ্ধে ভোটারদের প্রভাবিত করার অভিযোগ এনেছেন বিরোধীরা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি-নিউজ জানায়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির এই ধ্যানের ছবি ঘিরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ ট্রল হচ্ছে। মোদির এই ধ্যানে বসার ঘটনায়কে কিছুটা তিরস্কার করেই আজ সোমবার একটি ছবি পোস্ট দিয়েছেন চিত্রনায়ক অক্ষয় কুমারের স্ত্রী টুইঙ্কেল খান্না।

ওই ছবিতে গেরুয়া রঙের একটি পশুর মূর্তির পাশে টুইঙ্কেলকে মনসংযোগে বসতে দেখা গেছে। ছবির ক্যাপশানে টুইঙ্কেল লিখেছেন, ‘গত বেশ কয়েকদিন ধরে এ ধরনের আধ্যাত্মিক ও মনসংযোগের ছবি দেখে আমি মেডিটেশন ফটোগ্রাফির পোজ ও অ্যাঙ্গেলের ওপর ওয়ার্কশপ করব ভাবছি।টুইঙ্কেল খান্নার এই ছবি দেখে বেশ বোঝা যাচ্ছে যে, তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ধ্যানমগ্ন ছবি দেখার পরই এই তিরস্কার করেছেন।

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে টুইঙ্কেল খান্নার স্বামী অক্ষয় কুমার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির একটি অরাজনৈতিক সাক্ষাৎকার নেন। যেখানে অক্ষয় নরেন্দ্র মোদিকে বলেন, ‘আমি খেয়াল করেছি, আপনি নিয়মিত টুইটার থেকে শুরু করে সোশ্যাল মিডিয়া ফলো করেন।’ উত্তরে মোদি হাসতে হাসতে বলেন, ‘আমি আপনার ও আপনার স্ত্রী টুইঙ্কেলের টুইটারও ফলো করি। কখনো কখনো আমার মনে হয়, টুইঙ্কেলজি আমার ওপর রাগ টুইটারে উগড়ে দেন। এতে আমার মনে হয়, আপনার ও আপনার স্ত্রী পারিবারিক জীবন অনেক শান্তির হয়। উনার পুরো রাগ যখন উনি আমার উপরই টুইটারে উগড়ে দেন, তাতে আপনি শান্তিতে থাকেন। এভাবই আমি আপনারও কাজে লাগি।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।