আজকের বার্তা | logo

৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৯শে মে, ২০১৯ ইং

বাবা বেঘোর ঘুমে, কোলে মরে গেল ছয় দিনের সন্তান

প্রকাশিত : এপ্রিল ২০, ২০১৯, ১২:০০

বাবা বেঘোর ঘুমে, কোলে মরে গেল ছয় দিনের সন্তান

গত বছরের মে মাসের ঘটনা। ছয় দিনের পুত্র সন্তানকে বুকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েছিলেন বাবা। গভীর রাতে ঘুম থেকে ওঠার কিছুক্ষণ পর দেখা যায় কোলের শিশুটি মৃত।এ ঘটনা দেখিয়ে দিয়েছে ঘুমন্ত শিশুকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়াও হয়ে উঠতে পারে বিপজ্জনক। ঘটনাটি ঘটে ইংল্যান্ডের মরটনহ্যাম্পস্টিড শহরে। ঘটনার রাতে এমি উইলিস এবং কেভিন স্ট্যানলি দম্পতি তাঁদের ছয় দিনের শিশুকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়ার পর মারা যায় সে। শিশুটির নাম রাখা হয়েছিল জোসেফ লি। ময়নাতদন্তে শিশুটির মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত করতে পারেননি চিকিৎসকরা। তবে বলা হয়েছে শিশুকে নিয়ে একত্রে ঘুমানোর কারণে এটি ঘটতে পারে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গত বছরের মে মাসে এমার্জেন্সি সিজারের মাধ্যমে জন্ম নেয় জোসেফ। জন্মের সময় তাকে স্বাস্থ্যবান ও স্বাভাবিক শিশু বলেই উল্লেখ করেছিলেন চিকিৎসকরা। মায়ের বুকের দুধ গ্রহণের প্রক্রিয়াও ছিল স্বাভাবিক। যদিও পেটব্যথা ছিল তার। মৃত্যুর আগের দিন বলা হয়েছিল, জোসেফ যথেষ্ট বুদ্ধিদীপ্ত ও চঞ্চল হয়েছে। ঘটনার দিন রাত সাড়ে ৯টায় স্বাভাবিকভাবে বুকের দুধ পান করে সে। এ সময় বাবা-মা সোফায় বসে টেলিভিশন দেখছিলেন। বুকের দুধ খাওয়ার দুই ঘণ্টা পর সেখানেই তিনজন একসঙ্গে ঘুমিয়ে পড়েন। এ সময় শিশুটি তার বাবার বুকেই ছিল।  রাত ১টার দিকে জেগে ওঠেন জোসেফের বাবা স্ট্যানলি। বাহুতে তখনো ধরা ছিল জোসেফ। তাকে নিয়ে তিনি রান্নাঘরে যান আইসক্রিম আনতে। এ সময় তিনি বুঝতে পারেন জোসেফের শ্বাস-প্রশ্বাস বন্ধ।

গত বছরের ১৬ মে ঘটনাটি ঘটলেও এ নিয়ে দীর্ঘ তদন্ত হয়। চলতি সপ্তায় শহরের কাউন্টি হলে তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়।প্রতিবেদনে বলা হয় ময়নাতদন্তসহ ব্যাপক তদন্তের পরও শিশু জোসেফের মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত করা যায়নি। তবে বলা হয়েছে বাচ্চাকে কোলে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়ার  কারণেও এমনটি ঘটতে পারে।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।