আজকের বার্তা | logo

৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২০শে মে, ২০১৯ ইং

কলাপাড়ায় এবার স্বামী-স্বজনদের মারধর করে নববধূকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ

প্রকাশিত : এপ্রিল ২৬, ২০১৯, ১৪:৪৭

কলাপাড়ায় এবার স্বামী-স্বজনদের মারধর করে নববধূকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ

কলাপাড়া প্রতিনিধি ॥ স্বামী জাহিদুল ইসলাম সুজন হাওলাদারকে নিয়ে খালু বাড়িতে বেড়াতে এসে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন নববধূ তানজিলা (২০)। পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার চাকামইয়া ইউনিয়নের বেতমোড় গ্রামে বুধবার রাতে গৃহবধূর সর্বনাশ করা হয়েছে। স্বামীসহ স্বজনদের মারধর করে গ্রামের বখাটে ভাড়াটে মোটর সাইকেল চালক রফিক এ বধূকে বাড়ি সংলগ্ন বিলে নিয়ে ধর্ষণ করেন। ডাক-চিৎকারে গ্রামবাসী এগিয়ে আসলে সহযোগী অপর বখাটেরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় গৃহবধূর স্বামী সুজন হাওলাদার কলাপাড়া থানায় বেতমোর এলাকার দেলোয়ারের ছেলে রাসেল, হাকিম ফকিরের ছেলে রফিক, এছাহাক হাওলাদারের ছেলে খালেক এবং মন্নান গাজীর ছেলে জাফরসহ ৪ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেছেন। আহত অবস্থায় গৃহবধূকে রাত ১১টার দিকে কলাপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
জানা গেছে, বরগুনার আমতলী উপজেলার চাওরা ইউনিয়নের লোদা গ্রামের সুজন হাওলাদার তার নববিবাহিত স্ত্রীকে নিয়ে খালু শ^শুর বশারের বাড়িতে বুধবার শেষ বিকেলে বেড়াতে আসেন। রাত আনুমানিক ৮টায় এ চক্র ওই বাড়িতে গিয়ে ওঠে। সন্ত্রাসী স্টাইলে স্বামী-স্ত্রীকে আলাদা করে জানতে চায় তাদের বিয়ের কাবিনসহ বৈধতা আছে কি না। এক ফাঁকে তানজিলাকে মুখ চেপে বাড়ি সংলগ্ন বিলে নিয়ে জাপটে ধরে বখাটে রফিক ধর্ষণ করেন। ডাকচিৎকারে গ্রামের লোকজন এগিয়ে এলে সবাই সটকে পড়েন। ধর্ষিতা নববধূ কান্না বিজড়িত কণ্ঠে জানান, ওদের হাত-পা ধরে কাকুতি মিনতি করলেও আমাকে ছাড়েনি। কলাপাড়া থানার ওসি মনিরুল ইসলাম জানান, ভিকটিমকে বৃহস্পতিবার ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পটুয়াখালী পাঠানো হয়েছে। আসামি গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।