আজকের বার্তা | logo

১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২৬শে মে, ২০১৯ ইং

পিআইবির মহাপরিচালক শাহ আলমগীর আর নেই

প্রকাশিত : মার্চ ০১, ২০১৯, ১৪:৪৬

পিআইবির মহাপরিচালক শাহ আলমগীর আর নেই

বার্তা ডেস্ক ॥ বিশিষ্ট সাংবাদিক ও প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশের (পিআইবি) মহাপরিচালক সাংবাদিক মো. শাহ আলমগীর আর নেই। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেছেন তিনি (ইন্না…রাজিউন)। গত ২১ ফেব্রুয়ারি রাতে অসুস্থ হয়ে পড়লে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) ভর্তি করা হয় তাকে। পরদিন নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) নেয়া হয়। রক্তে হিমোগ্লোবিন কমে যাওয়া, ডায়াবেটিসসহ নানা ধরনের শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন তিনি। এদিকে মো. শাহ আলমগীরের জানাজা পিআইবি ও প্রেসকাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বেলা আড়াইটার দিকে তাঁর কর্মত্রে পিআইবিতে এবং বেলা ৩টার পর জাতীয় প্রেসকাবে তাঁর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পিআইবিতে জানাজার আগে তাঁর সহকর্মীরা শেষ শ্রদ্ধা জানান। প্রেসকাবে জানাজার আগে সাংবাদিক ও শুভানুধ্যায়ীরা শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। এ সময় তাঁর সাবেক কর্মস্থল প্রথম আলোর প থেকেও শেষ শ্রদ্ধা জানানো হয়। এরপর তাঁর মরদেহ উত্তরার ১১ নম্বর সেক্টর এলাকায় নেওয়া হয়। গতকাল সকাল ১০টায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের (সিএমএইচ) নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন মো. শাহ আলমগীর। তাঁর বয়স হয়েছিল ৬২ বছর। বেলা দেড়টার দিকে রাজধানীর গোড়ানে পৈত্রিক বাসভবনে তাঁর মরদেহ নেওয়া হয়।

 

সেখানে পরিবারের লোকজন ও আত্মীয়-স্বজন শ্রদ্ধা জানান। শাহ আলমগীর ২০১৩ সালের ৭ জুলাই পিআইবির মহাপরিচালক হিসেবে যোগ দেন। এরপর ২০১৮ সালের জুলাই মাসে তার চাকরির মেয়াদ আরও ১ বছর বাড়ায় সরকার। শিশু-কিশোর পত্রিকা সাপ্তাহিক কিশোর বাংলা পত্রিকায় যোগ দেয়ার মাধ্যমে সাংবাদিকতা শুরু করেন শাহ আলমগীর। ১৯৮০ সাল থেকে ১৯৮৪ সাল পর্যন্ত এই পত্রিকায় সহ-সম্পাদক হিসেবে কাজ করেন।এরপর তিনি দৈনিক জনতা, বাংলার বাণী, আজাদ ও সংবাদ ও প্রথম আলো পত্রিকায় কাজ করেন। এছাড়া প্রথম আলোর যুগ্ম বার্তা-সম্পাদক, চ্যানেল আইয়ের প্রধান বার্তা সম্পাদক, একুশে টেলিভিশনের হেড অব নিউজ,যমুনা টেলিভিশনের পরিচালক (বার্তা) এবং মাছরাঙা টেলিভিশনের বার্তা প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। সাংবাদিকতায় বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে তিনি ‘কবি আবু জাফর ওবায়দুল্লাহ সাহিত্য পুরস্কার ২০০৬, ‘চন্দ্রাবতী স্বর্ণপদক ২০০৫’, ‘রোটারি ঢাকা সাউথ ভোকেশনাল এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০০৪’ এবং ‘কুমিল্লা যুব সমিতি অ্যাওয়ার্ড ২০০৪’ পেয়েছেন। শাহ আলমগীর ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। শাহ আলমগীরের পৈত্রিক বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে। কিন্তু বাবার চাকরি সূত্রে বৃহত্তর ময়মনসিংহে জীবনের বড় একটি সময় কাটে তার। ময়মনসিংহের গৌরীপুর কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করে ভর্তি হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। বাংলা সাহিত্যে অনার্স ও মাস্টার্স করেন।

পারিবারিক জীবনে শাহ আলমগীর এক পুত্র ও কন্যা সন্তানের জনক। তার স্ত্রী ফৌজিয়া বেগম একটি ওষুধ কোম্পানিতে কাজ করেন। ছেলে আশিকুল আলম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএ থেকে বিবিএ পাস করে কাজ করছেন এইচএসবিসি ব্যাংকে। মেয়ে অর্চি অনন্যা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইইউবিতে সাংবাদিকতা বিষয়ে পড়াশোনা করছেন। প্রবীণ এই সাবাদিক শাহ আলমগীরের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বরিশাল প্রেসকাবের শোক: বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউট (পিআইবি)’র মহা পরিচালক ও বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যান ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহ আলমগীর এর মৃত্যুতে গভীর শোক, শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাদ বরিশাল প্রেসকাবের সভাপতি কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল, সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসেন ও কার্য নিবার্হী পরিষদসহ সকল সদস্যবৃন্দ। শোক বার্তায় নেতৃবৃন্দ মরহুমের রুহের মাগফেরত কামনা করেছেন।

বরিশাল সাংবাদিক ইউনিয়নের শোক: বিশিষ্ট সাংবাদিক, বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক শাহ আলমগীর এর মৃত্যুতে বরিশাল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিইউজে) গভীর শোক প্রকাশ করেছে। এক শোক বিবৃতিতে বিইউজে’র সভাপতি পুলক চ্যাটার্জি ও সাধারণ সম্পাদক স্বপন খন্দকার মরহুম শাহ আলমগীর এর রুহের মাগফিরাত কামনা এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।