আজকের বার্তা | logo

৯ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২১শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং

পরিবেশ বাঁচাতে স্কুল ছাত্রছাত্রীদের ‘ফ্রাইডে’স ফর ফিউচার’ আন্দোলন

প্রকাশিত : মার্চ ২০, ২০১৯, ২১:৫৩

পরিবেশ বাঁচাতে স্কুল ছাত্রছাত্রীদের ‘ফ্রাইডে’স ফর ফিউচার’ আন্দোলন

ইউরোপে শুরু হয়েছে নতুন এক পরিবেশ আন্দোলন। এই নতুন আন্দোলনের কারিগর হলো স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা। তাদের নতুন আদলের এই আন্দোলনের ঢেউ এখন ক্রমেই বেড়ে চলেছে। প্রথম দিকে সুইডেন, তারপর ইউরোপে কিছু দেশ, এখন এই পরিবেশ আন্দোলনের ব্যাপ্তি বিশ্বজুড়ে। ১৫ মার্চ শুক্রবার বিশ্বের ১১০ দেশের ১৭০০ শহরে এই আন্দোলনের সপক্ষে স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা রাস্তায় নেমেছে। তারা নেমেছে ওয়েলিংটন, সিডনি, টোকিও, কিয়েভ, এথেন্স, মাদ্রিদ, হংকং, রোম, প্যারিস, লন্ডন, বেঙ্গালুরু, বার্লিনসহ আরও অনেক শহরে। ১৫ মার্চ শুধু জার্মানিতেই ছোট-বড় ২১০ শহরে স্কুলের ৩ লাখ ছাত্রছাত্রী রাজপথে নেমেছে।

স্কুল ফেলে পরিবেশদূষণের বিরুদ্ধে নতুন এক আন্দোলন শুরু হয়েছে, নাম ‘ফ্রাইডে’স ফর ফিউচার’। আন্দোলনের শুরুটা হয়েছিল সুইডেনে, এখন তা ছড়িয়ে পড়েছে ইউরোপের দেশে দেশে এবং বিশ্বজুড়ে। গত বছর গ্রীষ্মে সুইডেনের গ্রের্টা থুনবের্গ নামের এক ১৫ বছর বয়সী স্কুলছাত্রী এই আন্দোলনের সূত্রপাত করে। আন্দোলনের মূলনীতি হলো, স্কুলের থেকে পরিবেশ আগে। আর সেই নীতিবাক্য মেনে শুক্রবার শেষের দুটি পিরিয়ড ফেলে রেখে স্কুল ছেড়ে পরিবেশের জন্য রাজপথে।গত ২৫ জানুয়ারি বার্লিনের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে ছিল জার্মানির কয়লা কমিশনের বিশেষ সভা। বার্লিনের রাজপথে তখন হাজার হাজার স্কুল ছাত্রছাত্রী। তাদের হাতে ছিল পরিবেশদূষণের বিরুদ্ধে নানা প্ল্যাকার্ড। গন্তব্য ছিল তাদের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়। ১১ বছর বয়সী পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী এলিজা নিজের তৈরি প্ল্যাকার্ডে লিখেছে, ‘কেন আজকে স্কুলে যাব, যদি আগামীকাল আর পৃথিবীর অস্তিত্বই না থাকে?’ এলিজার সঙ্গে এসেছে দুই সহপাঠী। এই রকম অনেকে, যারা বয়সের কোঠায় ১০ থেকে কুড়ির মধ্য। বার্লিনের রাজপথে এমন হিমশীতল হিমাঙ্কের নিচের তাপমাত্রা উপেক্ষা করে নেমে এসেছিল প্রায় ১০ হাজার ছাত্রছাত্রী।

এর আগে ১৮ ডিসেম্বর জার্মানির ২০টি শহরে প্রায় ২৫ হাজার ‘ফ্রাইডে’স ফর ফিউচার’ আন্দোলনকারী রাজপথে নেমে এসেছিল। ২৫ জানুয়ারি শুক্রবার বার্লিনে জার্মানির পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে ছিল কয়লা কমিশনের একটি সিদ্ধান্তমূলক সভা। এর আগে পারমাণবিক জ্বালানি উৎপাদন ব্যবস্থা থেকে বের হয়ে আসার সিদ্ধান্তের পর জার্মানি কবে নাগাদ পরিবেশদূষণকারী কয়লা উৎপাদিত বিদ্যুৎ চুল্লিগুলো বন্ধ করতে পারে, সেই বিষয়ক সিদ্ধান্ত। জার্মানিতে কয়লা কমিশনে রয়েছেন পরিবেশবাদী, জ্বালানি বিশেষজ্ঞ, শিল্পকারখানার মালিক ও শ্রমিক ইউনিয়নের প্রতিনিধিরা।

দিনটিকে সামনে রেখে গোয়েটিংগেন বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত ২২ বছরের এক ছাত্রী, সুইডেনের গ্রের্টা থুনবের্গের শুরু করা ‘ফ্রাইডে’স ফর ফিউচার’ আন্দোলনের জার্মান অনুসারীদের রাজধানী বার্লিনে সমবেত করেছিলেন। ২৫ জানুয়ারি শুক্রবার বার্লিনের রাজপথ প্রকম্পিত হয়েছিল, পরিবেশ বাঁচানোর সপক্ষে নতুন প্রজন্মের নতুন আদলের পরিবেশ আন্দোলনকারীদের পদচারণে। ক্রমেই এদের সংখ্যা বাড়ছে।পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র জোয়ান মিরো মিছিলে চিৎকার করে বলছে পরিবেশ নষ্টকারী কয়লার দ্বারা তৈরি জ্বালানি অবশ্যই বন্ধ করতে হবে। মিছিলকারীরা বলছে, ‘আমরা এই আন্দোলন করছি আমাদের ভবিষ্যৎ নিরাপত্তার জন্য। ছাত্রছাত্রীরা নিজেরাই অবসর সময়ে নানা পোস্টার ফেস্টুন বানিয়ে সঙ্গে এনেছে। প্রচণ্ড ঠান্ডায় দীর্ঘক্ষণ ধরে ট্রেনে বা বাসে করে নিজেদের পকেটের পয়সা খরচ করে তারা বার্লিনে এসেছিল।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।