আজকের বার্তা | logo

৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৮ই জুন, ২০১৯ ইং

ঢাবিতে ‘রাব্বানীর নামে রাখা’ লাঠি-স্টাম্প উদ্ধার

প্রকাশিত : মার্চ ১০, ২০১৯, ২২:০৪

ঢাবিতে ‘রাব্বানীর নামে রাখা’ লাঠি-স্টাম্প উদ্ধার

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনের আগের রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সোপার্জিত স্বাধীনতার (ডাস) দোকান থেকে লাঠি-স্টাম্প উদ্ধার করেছে প্রক্টর টিমের সদস্যরা। আজ রোববার রাত ৮টা ২০ মিনিটের দিকে এসব উদ্ধার করা হয়।

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর নামে তার অনুসারীরা এই অস্ত্র রাখেন বলে জানান দোকানের কর্মচারীরা। এই খবর পেয়ে দোকানে অভিযান চালায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর টিমের সদস্যরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, প্রক্টর টিমের সদস্যরা খবর পেয়ে রাত ৮টার পর দোকানে অভিযান চালায়। এর মধ্যে চারজন প্রক্টর টিমের সদস্যরা দোকানের ভেতরে ঢোকে। এ সময় তারা কয়েকশ লাঠি-সোটা, স্টাম্প এবং ক্রিকেট খেলা ব্যাট উদ্ধার করে। পরে সেগুলো প্রক্টর অফিসে নিয়ে যাওয়া হয়।

দোকানের কর্মচারী পারভেজ সাংবাদিকদের বলেন, ‘কয়েকজন শিক্ষার্থী এসে বলে যে, গোলাম রাব্বানী (ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক) ভাই এগুলো ভেতরে রাখতে বলে। তাই আমরা রাখি। কিন্তু এতে কী আছে তা আমরা জানতাম না।’

প্রক্টরিয়াল টিমের কয়েকজন সদস্য জানান, রাত সাড়ে ৮টার দিকে দোকানে অভিযান চালানোর পরে কয়েকশ লাঠি, স্টাম্প ও ব্যাট উদ্ধার করে প্রক্টর টিমের সদস্যরা। এ সময় ছাত্রলীগের কিছু নেতাকর্মী এসে দোকানদারদের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন ধরনের কটু কথা বলেন। তারা দোকানদারদের উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘এখানে কে রেখেছে তা না জেনে রাব্বানী ভাইয়ের নাম কেন করছ? তখন দোকানদাররা বলেন, আমরা যা জানি তাই বলছি। এখানে ছাত্ররা যদি কিছু রাখে তবে আমাদের কী করার?’ তখন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা তাকে থামিয়ে দেন এবং গোলাম রাব্বানীর নাম না নেওয়ার নির্দেশ দেন।

এদিকে প্রক্টর টিমের সদস্যরা যখন এসব লাঠি, স্টাম্প নিয়ে যান তখন ছাত্রলীগের কয়েকজন কর্মী এসে নিজেদের বাস কমিটির নেতা বলে পরিচয় দেন। তারাই এসব কিছু দোকানের মধ্যে রাখেন বলে স্বীকার করেন। তাদের মধ্যে চৈতালী বাসের সাবেক সভাপতি ও স্যার এ এফ রহমান হলের ছাত্র রাকিব হাওলাদার, হেমন্ত বাসের সভাপতি মোবারোক, বৈশাখী বাসের সভাপতি শামীম এসব রড, স্টাম্প রাখেন বলে জানান রাকিব।

জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিনান্স বিভাগের এই ছাত্র রাকিব হাওলাদার সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা খেলা করার জন্য এগুলো নিয়ে আসি। পাশ থেকে একজন প্রশ্ন করেন, কাল নির্বাচন উপলক্ষে স্টাম্প দিয়ে খেলা করবেন? তখন রাকিব বলেন, সব হলেই খেলা করার জিনিস আছে। তাই আমরাও খেলা করার জন্য এগুলো এনেছি। এসব স্টাম্প এবং ব্যাটের বাজার মূল্য সাড়ে ২৯ হাজার টাকা।’

ডাকসুর আচরণ বিধির ১৪ নম্বর ধারায় আছে, নির্বাচনী প্রচারণা ও নির্বাচন চলাকালে বিস্ফোরক, দেশি অস্ত্র (লাঠিসোটা, রড, হকিস্টিক, ছুরি-কাঁচি) ও আগ্নেয়াস্ত্র বহন সস্পূর্ণ নিষিদ্ধ। আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য বা অনুমোদিত ব্যক্তি ব্যতীত অন্য কেউ দেশি অস্ত্র বাআগ্নেয়াস্ত্র বহন করতে পারবেন না।

এ বিষয়ে জানতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রাব্বানী বলেন, প্রক্টর টিম সেগুলো উদ্ধার করছে। আমরা খোঁজ নিয়ে দেখছি। তবে ক্যাম্পাসের কোনে ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটলে তা শক্তহাতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অভিযোগের বিষয়ে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীকে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি ধরেননি।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।