আজকের বার্তা | logo

৮ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ২১শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং

পটুয়াখালী কলাপাড়ায় ট্রলারডুবি : ২০ ঘণ্টা পর নিখোঁজ ২ শ্রমিকের লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত : ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৯, ১৫:৪৭

পটুয়াখালী কলাপাড়ায় ট্রলারডুবি : ২০ ঘণ্টা পর নিখোঁজ ২ শ্রমিকের লাশ উদ্ধার

কলাপাড়ায় রাবনাবাদ চ্যানেলে বাল্কহেডের ধাক্কায় ইটবোঝাই ট্রলারডুবির ঘটনার ২০ ঘণ্টা পর নিখোঁজ দুই শ্রমিকের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।রোববার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ওই দুই মৃতদেহ উদ্ধার করেন স্থানীয় ডুবুরিরা। তবে ডুবন্ত স্টিলবডির ট্রলারটি উদ্ধার করা যায়নি।মৃত শ্রমিকরা হলেন নূর ইসলাম (৩০) ও সাইফুল ইসলাম (২৮)। তাদের বাড়ি নীলগঞ্জ ইউনিয়নের বাইনতলা গ্রামে।

এর আগে শুক্রবার রাত ১১টায় বাল্কহেডের ধাক্কায় রাবনাবাদ চ্যানেলের দেবপুর পয়েন্টে ইটবোঝাই ট্রলারটি সাত শ্রমিকসহ ডুবে যায়।এদিকে এ ঘটনায় বাল্কহেডের সাত কর্মচারীর নামে আজ সকালে কলাপাড়া থানায় একটি মামলা হয়েছে। পুলিশ প্রধান আসামি বাল্কহেড কর্মচারী নুরুজ্জামানসহ আফজাল হোসেন ও এনামুল হককে গ্রেফতার করেছে।মামলাটি করেছেন ডুবন্ত ট্রলারের মালিক নিজাম শরীফ। অন্য আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে তদন্ত কর্মকর্তা এসআই বিপ্লব জানান।

উদ্ধার করা শ্রমিকের মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পটুয়াখালী মর্গে পাঠানো হয়েছে।জানা যায়, রাবনাবাদ চ্যানেলের দেবপুর পয়েন্টে শুক্রবার রাত ১১টায় বাল্কহেডের ধাক্কায় ইটবোঝাই ট্রলারটি সাত শ্রমিকসহ ডুবে যায়। পাঁচ শ্রমিক মো. নাসির উদ্দিন, মো. মাসুম, মো. রাসেল, মো. তোফাজ্জেল এবং মো. মানিক সাঁতরে তীরে উঠলেও সাইফুল ও নূর ইসলামকে তখন উদ্ধার করা যায়নি।

কোস্টগার্ড, কলাপাড়া এবং বরিশাল ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল ট্রলার ও নিখোঁজ শ্রমিকদের শনিবার দিনভর উদ্ধারের চেষ্টা করেছেন।উদ্ধার হওয়া শ্রমিক মো. মানিক জানান, নীলগঞ্জ ইউনিয়নের নবীপুর গ্রামের মো. রুহুল আমীনের ‘সততা’ ইটভাটা থেকে ইট বোঝাই করে তারা গলাচিপা যাচ্ছিলেন।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।