আজকের বার্তা | logo

৮ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২০শে জানুয়ারি, ২০১৯ ইং

বরিশালে ১২ মাসের ভাসমান হাট, দেখলে চোখ জুড়িয়ে যায়

প্রকাশিত : জানুয়ারি ১১, ২০১৯, ২২:১৭

বরিশালে ১২ মাসের ভাসমান হাট, দেখলে চোখ জুড়িয়ে যায়

প্রকৃতির সৌন্দর্য দেখার জন্য ভ্রমণপিপাসু মানুষ প্রতিনিয়ত ছুটে চলছে পৃথিবীর এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্তে। যাদের কাছে টাকা বা শারীরিক কষ্ট কখনোই গ্রহণযোগ্যতা পায়নি। শুধু একটাই ক্ষুদা আর তা হলো প্রকৃতির সান্নিধ্যে গিয়ে নিজের মনপ্রাণকে এর সৌন্দর্যে ভিজিয়ে নেয়া।

যারা দেশের মধ্যেই খুঁজে পেতে চান ব্যাংককের ভাসমান বাজারের ছোঁয়া, চারদিকে শুধু নির্মল আনন্দ, তারা চোখ বুজে ঘুরে আসুন বৃহত্তর বরিশালের স্বরুপকাঠি উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে ৩১টি ভাসমান বাজারে।

স্বরুপকাঠি উপজেলার তিনটি বন্দর ও ২৮টি বাজার এর বেশির ভাগই কোনো না কোনো ছোট-বড় খালের পাশে অবস্থিত।আর এসব নদী বা খালের মধ্য থেকে নৌকা বা ছোট লঞ্চে ভ্রমণের সময় মনের মধ্যে গেয়ে উঠবে একি অপরূপ রূপে মা তোমার হেরিনু পল্লী জননী।

সূর্য ওঠা থেকে শুরু করে রবি অস্ত পর্যন্ত চলে এসব হাটে বেচাকেনা আবার কোনটা মধ্যরাত পর্যন্ত আবার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই শেষ হয়ে যায় কোনটা।আপনি এখানে দেখতে পাবেন পেয়ারার ভাসমান বাজার ছাড়াও, ধান, চাল, সবজি চারা, ফুলের চারা, ফলের চারা, বিভিন্ন ধরনের বনজি গাছের চারা, ধানের চারা, সবজি, মাছ, মৌসুমি ফলের ভাসমান বাজারসহ দেশের বৃহত্তম ভাসমান গোল কাঠের বাজার। আর এর সাথে বাড়তি আনন্দ হিসেবে থাকছে শুধুমাত্র নারীদের জন্য ভাসমান বাজার।

নদীবেষ্টিত স্বরুপকাঠির ১০টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় রয়েছে ৩টি বন্দরসহ ৩১টি বাজার।সুটিয়াকাঠি ইউনিয়নে ৩টি, সোহাগদল ইউনিয়নে ৩টি, বলদিয়া ইউনিয়নে ৬টি, দৈহারী ইউনিয়নে ৩টি, গুয়ারেখা ইউনিয়নে ৪টি, সারেংকাঠি ইউনিয়নে ১টি, আটঘর কুড়িয়ানা ইউনিয়নে ৩টি, জলাবাড়ি ইউনিয়নে ৩টি, সমুদয়কাঠি ইউনিয়নে ৪টি ও স্বরুপকাঠি পৌরসভায় ১টি বাজার রয়েছে। প্রায় প্রতিটি বাজারের পাশ দিয়েই বয়ে গেছে কোনো না কোনো নদী বা খাল আর এসব খাল বা নদীতেই চলে পাইকারি ও খুচরা কেনাবেচার কাজ। দেশের সর্ববৃহৎ ভাসমান কাঠের বাজার প্রায় প্রতিদিনই বসলেও বিশেষ করে সোম ও বৃহস্পতিবার হাটের দিন অনুষ্ঠিত হয় স্বরুপকাঠির শিতলা খালের সঙ্গে সন্ধা নদীর সংযোগ স্থলে ও ইন্দুরহাট ও মিয়ারহাটের মাঝ থেকে বয়ে যাওয়া খালে।

বউ বাজার

বউ বাজার প্রতি সপ্তাহে সোম ও বৃহস্পতিবার বলদিয়া ইউনিয়নের পঞ্চবেকি বাজারসংলগ্ন খাল, সোহাগদলের এন ডাব্লিউ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পূর্বপাশে সুপারিতলা ও সুটিয়াকাঠি ইউনিয়নের কালিবাড়ি গোপে বসে বউ বাজার। এখানে গ্রামের বউঝিরা ভাসমান বিক্রেতাদের কাছ থেকে মাছ চাল সবজিসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ক্রয় করে থাকেন।

ধানের চারার হাট

ধানের চারার হাট সারেংকাঠি ইউনিয়নের করফা বাজার সোম ও বৃহস্পতিবার,জলাবাড়ি ইউনিয়নে জলাবাড়ি বাজার রবিও বুধবার, একি ইউনিয়নে ইদলকাঠি বাজার সোম ও শুক্রবার, সমুদয়কাঠি ইউনিয়নে শশিদ বাজার শনিবার, একি ইউনিয়নে সাগরকান্দা বাজার মঙ্গলবারে হাট বসে।

চালের ভাসমান বাজার

চালের ভাসমান বাজার সুটিয়াকাঠি ইউনিয়নের মিয়ারহাট, স্বরুপকাঠির লঞ্চঘাটসংলগ্ন সন্ধা নদীতে সোম ও বৃহস্পতি বার এ হাট বসে

সুপারির হাট

সুপারির হাট জলাবাড়ি ইউনিয়নের ইদলকাঠি বাজারে সোম ও শুক্রবার, একি ইউনিয়নের জলাবাড়ি বাজারে রোববার ও বুধবার, সমুদয়কাঠি ইউনিয়নের শশিদ বাজারে শনিবার ও সাগর কান্দা বাজারে মঙ্গলবার।

নৌকার হাট

আটঘর কুড়িয়ানা ইউনিয়নের আটঘর বাজারে সোম ও শুক্রবার, বলদিয়া ইউনিয়নে চামী একতা বাজারে শনি ও মঙ্গলবার, মিয়ারহাট বন্দরে সোম ও বৃহস্পতিবার।

ভাসমান সবজির হাট

ভাসমান সবজির হাট প্রতিদিন সকালে প্রায় প্রতিটি বাজারেই বসে মৌসুমি সবজির ভাসমান বাজার। আমরার হাট বলদিয়া ইউনিয়নের ১৪ রশি (উড়িবুনিয়া) বাজারে রবি ও বুধবার। নারিকেলের ছোবরার ও পাপষের হাট মিয়ারহাট বন্দরে সোম ও বৃহস্পতিবার এ হাট বসে।

খরচ

খরচ একেবারেই হাতের নাগালে লঞ্চ বা বাস যেভাবেই আসুন ২ রাত ও ১ দিনে মাত্র তিন হাজার টাকা খরচে পেতে পারেন এ নির্মল আনন্দ।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।