আজকের বার্তা | logo

৩রা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৮ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং

শিশু ও নারী নির্যাতনের ছবি ও সংবাদ প্রকাশে সতর্ক থাকার আহ্বান

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৮, ০১:৩৪

শিশু ও নারী নির্যাতনের ছবি ও সংবাদ প্রকাশে সতর্ক থাকার আহ্বান

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বরিশালের বিভিন্ন আঞ্চলিক দৈনিকের সম্পাদকদের সাথে শিশু ও নারী উন্নয়ন বিষয়ক এক সংলাপের আয়োজন করেছে প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ (পিআইবি)।গতকাল বৃহস্পতিবার শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল প্রেসকাবে অনুষ্ঠিত এ সংলাপে প্রধান অতিথি ছিলেন পিআইবি’র মহাপরিচালক শাহ আলমগীর। সংলাপে শিশু ও নারী নির্যাতনের যত্রতত্র ছবি ও সংবাদ যা সমাজে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করতে পারে, তা প্রকাশের ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বনের আহ্বান জানানো হয়েছে। বিভিন্ন দৈনিকের সম্পাদকদের উপস্থিতিতে সংলাপে সভাপতিত্ব করেন শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল প্রেসকাবের সভাপতি কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল। উপস্থিত ছিলেন প্রেসকাবের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসেন, সাবেক সভাপতি মেহেরুন্নেছা বেগম, অ্যাড. এস এম ইকবাল প্রমুখ। ‘শিশু ও নারী উন্নয়নে সচেতনতামূলক যোগাযোগ কার্যক্রম’ (৫ম পর্যায়) প্রকল্পের আওতায় পিআইবি’র শিশু ও নারী বিষয়ক প্রশিক্ষণ ও ফিচার কার্যক্রমে অংশগ্রহণকারী বক্তারা বলেন, ‘শিশু ও নারী উন্নয়ন সচেতনতামূলক যোগাযোগ কার্যক্রম’ তথ্য মন্ত্রণালয়ের একটি প্রকল্প। সরকারের রাজস্ব খাত এবং ইউনিসেফ’র অর্থায়নে এ প্রকল্পটি পরিচালিত হয়। বাংলাদেশের উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের লক্ষ্যে নারী ও শিশু বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ এবং সংবেদনশীল একটি জায়গা। সরকার সমাজের বিরাট এ অংশের উন্নয়নের জন্য নানা কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করে তা বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে গণমাধ্যম এবং গণমাধ্যমনির্ভর সংস্থাগুলো বিশেষ ভূমিকা রেখে চলেছে। পিআইবি গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠান হিসেবে শুরু থেকে এর সাথে সম্পৃক্ত। বক্তারা বলেন, সমাজে ঘটে যাওয়া হাসি-কান্না, দু:খ-বেদনা তুলে ধরার পাশাপাশি গণমাধ্যম আধুনিক সমাজ গঠনে সরকার ও জনগণকে সহায়তা করে থাকে। এ ধরনেরই একটি লক্ষ্যমাত্রা মিলেনিয়াম ডেভেলপমেন্ট গোল বা সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্য (এমডিজি)। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ শিশু মৃত্যুহার কমিয়েছে, সর্বজনীন প্রাথমিক শিক্ষার হার বাড়িয়েছে, নারী-পুরুষের সমতা অর্জন, চরম দারিদ্র ও ক্ষুধা নির্মূলের মাধ্যমে দারিদ্রতা হ্রাসে সাফল্য অর্জন করেছে। বাংলাদেশ শিশুমৃত্যুর হার কমিয়ে আনার স্বীকৃতিস্বরূপ জাতিসংঘ এমডিজি পুরস্কার লাভ করেছে। এমডিজি’র বাকী কাজ সম্পন্ন এবং আরো নতুন লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে জাতিসংঘ টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এমডিজি) ঘোষণা করে। পরবর্তীতে বাংলাদেশ ২০১৬ থেকে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) বাস্তবায়ন শুরু করে। বাংলাদেশ স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদি কার্যক্রম গ্রহণের মাধ্যমে এসডিজি বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। এ লক্ষ্যমাত্রার ভিত্তিতে প্রণীত হয়েছে বাংলাদেশের ভিশন রূপকল্প-২০২১। রূপকল্প অনুসারে দেশের প্রত্যেকটি ক্ষেত্রে উন্নয়ন ঘটিয়ে ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে রূপান্তর করা হবে। এ পরিকল্পনা অনুসারে বাংলাদেশ স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদী কার্যক্রম গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করছে। অতিসম্প্রতি বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে পদার্পণ করেছে। এ সকল সাফল্যের পেছনে সাংবাদিকদের সক্রিয় ভূমিকা রয়েছে। তাদের লেখনীর মাধ্যমে জনগণ সচেতন হয়েছে। এসডিজি, এমডিজি এবং রূপকল্প-২০২১ অর্জনের জন্য বাংলাদেশের নারী ও শিশুদের উন্নয়ন প্রয়োজন। এ উন্নয়নে কার্যকর যোগাযোগ নিশ্চিত করতে সরকার ও ইউনিসেফ’র আর্থিক সহযোগিতায় তথ্য মন্ত্রণালয়ের অঙ্গ সংস্থাসমূহ প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ (পিআইবি), বাংলাদেশ বেতার, বাংলাদেশ টেলিভিশন, গণযোগাযোগ অধিদপ্তর, জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউট, চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তর, তথ্য অধিদপ্তর ও বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস)- এই ৮টি গণমাধ্যম সংস্থা বর্তমানে তাদের স্ব-স্ব অবস্থান থেকে ‘বাংলাদেশের শিশু ও নারী উন্নয়ন সচেতনতামূলক যোগাযোগ কার্যক্রম’ প্রকল্পের আওতায় তথ্য ও যোগাযোগভিত্তিক বহুমুখী উন্নয়নমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করছে। প্রথম পর্যায়ে (১৯৯৬-২০০১) এই প্রকল্পের নাম ছিল ‘বাংলাদেশের শিশু ও নারীদের উন্নয়ন লক্ষ্যসমূহ অর্জনে যোগাযোগ কার্যক্রম’। বর্তমানে ৫ম পর্যায়ের কাজ শুরু হয়েছে। প্রকল্পের নাম করা হয়েছে ‘শিশু ও নারী উন্নয়নে সচেতনতামূলক যোগাযোগ কার্যক্রম’। সংলাপে বরিশালের শিশু ও নারীদের উন্নয়নে সম্পাদকদের ভূমিকা রাখার আহ্বান জানানো হয়েছে।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।