আজকের বার্তা | logo

৩রা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৮ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং

বরিশালের ৫ জয়িতাকে সম্মাননা

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ২৪, ২০১৮, ০৩:৫৪

বরিশালের ৫ জয়িতাকে সম্মাননা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ জীবন-সংগ্রামে নানা ঘাত-প্রতিঘাত পেরিয়ে নিজ নিজ েেত্র অনন্য অবদান রাখা ৫ নারী ২০১৭-১৮ সালের বরিশাল বিভাগের সেরা জয়িতা নির্বাচিত হয়েছেন। গতকাল রোববার নগরীর অশ্বিনী কুমার হলে ৫ জয়িতাকে সম্মাননা জানিয়েছে বিভাগীয় প্রশাসন। ৫ নারী অশ্রুসিক্ত কণ্ঠে তাদের জীবন সংগ্রামের কথা জানান অনুষ্ঠানে। জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিভাগীয় কমিশনার রাম চন্দ্র দাস। বিভাগের ৫ জয়িতা হলেন- অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী উজিরপুর উপজেলার শিকারপুর গ্রামের মাকসুদা বেগম, শিা ও চাকরি েেত্র সাফল্য অর্জনে পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলার উজিয়ালখান গ্রামের প্রিয়ংবদা ভট্টাচার্য্য, সফল জননী ঝালকাঠি শহরের রোনালসে রোডের আনোয়ারা বেগম, নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে নতুন জীবন শুরু করায় পটুয়াখালী শহরের সবুজবাগ এলাকার হাসিনা আক্তার এবং সমাজ উন্নয়নে অন্যন্য অবদান রাখায় বরগুনার তালতলী উপজেলার নমিষেপাড়া গ্রামের মায়া রাখাইন। প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বিভাগীয় কমিশনার রাম চন্দ্র দাস বলেন, ‘‘আমরা এ দেশবাসী ভাগ্যবান। কারণ গত ১০ বছর যাবত দেশকে যিনি নেতৃত্ব দিচ্ছেন সেই প্রধানমন্ত্রী নিজেই একজন জয়িতা।” অনুষ্ঠানের শুরুতে আগত অতিথিদের জীবন সংগ্রামের কথা শোনান ৫ জয়িতা। কষ্টের কথা বলতে গিয়ে অশ্রু সংবরণ করতে পারেননি জয়িতা পটুয়াখালীর হাসিনা আক্তার। বড় বোনের মৃত্যু হলে ৮ম শ্রেণির ছাত্রী হাসিনার বিয়ে হয়েছিল ভগ্নিপতির সঙ্গে। সেখানে সুখ না হওয়ায় ২২ দিনের শিশু সন্তানসহ বাবার বাড়িতে চলে আসেন হাসিনা। কিছুদিন পর বাবার মৃত্যু হলে সৎমায়ের কটুক্তি সইতে না পেরে হাসিনা ঢাকায় মামার বাসায় আশ্রয় নেন। সেলাইয়ের কাজ শিখে চাকরি নেন একটি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থায়। চাকরির পাশাপাশি লেখাপড়া করে তিনি এসএসসি পাস করে কর্মেেত্র পদোন্নতি পান। ছেলেকে মাস্টার্স পাস করানোর পর তিনি এখন ইউনিয়ন পরিষদ সচিব পদে চাকরি করছেন। উপজাতি মায়া রাখাইন বরগুনার তালতলীতে মহিলা উন্নয়ন নামক একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা গড়ে সেলাই ও তাঁতশিল্প প্রশিণ দিয়ে নারীদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করছেন। নদীভাঙনে ভিটেহারা বাবুগঞ্জ উপজেলার মাকসুদা বেগম সবজি চাষ ও হাঁস-মুরগীর খামার গড়ে এখন সাবলম্বী। ঝালকাঠির আনোয়ারা বেগম জীবনের নানা ঘাত-প্রতিঘাত পেরিয়ে ৮ ছেলে ও ৩ মেয়েকে উচ্চ শিায় শিতি করেছেন। পোলিও রোগে আক্রান্ত হয়ে পা হারানো অদম্য প্রিয়ংবদা ভট্টাচার্য্য ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় থেকে সর্বোচ্চ ডিগ্রি নিয়ে নিজ উপজেলা পিরোজপুরের কাউখালীতে ফিরে শারীরিক প্রতিবন্ধী ছেলেমেয়ের লেখাপড়ায় সাহায্য করছেন। জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা রাশিদা পারভীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার ড. মো. মোশারফ হোসেন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. নুরুজ্জামান, উন্নয়ন সংগঠক রহিমা সুলতানা কাজল প্রমুখ।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।