আজকের বার্তা | logo

৯ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং

দক্ষিণাঞ্চলের ৩০ লক্ষাধিক মানুষের স্বপ্নপূরণ এক ধাপ এগিয়ে

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ০৮, ২০১৮, ০২:১৩

দক্ষিণাঞ্চলের ৩০ লক্ষাধিক মানুষের স্বপ্নপূরণ এক ধাপ এগিয়ে

আমতলী প্রতিনিধি ॥ পায়রা নদীতে সেতু নির্মাণে ক্ষতিগ্রস্তদের জরিপ করে তালিকা তৈরির নির্দেশ দিয়েছে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সেতু বিভাগ। ফলে সেতু নির্মাণ কাজ এক ধাপ এগিয়ে যাওয়ায় দক্ষিণাঞ্চলের ৩০ লক্ষাধিক মানুষের স্বপ্নপূরণ হতে চলেছে। গতকাল শুক্রবার এ চিঠির খবরে আমতলী মানুষের মাঝে আনন্দের বন্যা বইছে। পায়রা সমুদ্র বন্দর  হতে মংলা সমুদ্র বন্দরের সংযোগ সহজীকরণ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্বাচনী সংসদীয় আসন আমতলী-তালতলী’র সাথে জেলা শহর বরগুনার যোগাযোগের জন্য পায়রা নদীর উপর সেতু নির্মাণের প্রস্তাব চূড়ান্তভাবে অনুমোদন দিয়েছে একনেক। উন্নয়নের মহাসড়কে যুক্ত হতে যাচ্ছে আমতলী-বরগুনা। আমতলীর পায়রা নদীর এ সেতুটি নবম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতু নামে পরিচিত হবে। এ অঞ্চলের মানুষের প্রাণের দাবি ছিল পায়রা নদীতে সেতু নির্মাণ। সেতু নির্মিত হলে দক্ষিণাঞ্চলের ৩০ লক্ষাধিক মানুষের স্বপ্নপূরণ হবে। সাধারণ মানুষের দাবির প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেতু মন্ত্রণালয়কে পায়রা নদীতে সেতু নির্মাণের সম্ভাব্যতা যাচাইসহ সকল কার্যক্রমের নির্দেশ দেন। সেতু নির্মাণের কাজকে দ্রুত গতিতে এগিয়ে নেয়ার জন্য সেতু বিভাগ পায়রা নদীতে সেতু নির্মাণের লক্ষ্যে সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের জন্য পরামর্শক প্রতিষ্ঠান হিসেবে“ ঝঞটচ পড়হংঁষঃধহঃং ঢ়াঃ.খঃফ. রহ লড়রহঃ াবহঃঁৎব রিঃয ফবাবষড়ঢ়সবহঃ ফবঁরমহ পড়হংঁষঃধহঃং খঃফ, ফবা-পড়হংঁষঃধহঃং খঃফ.ধহফ পড়রি টক খঃফ” কে নিয়োগ প্রদান করে। এ পরামর্শক প্রতিষ্ঠান বর্তমানে প্রস্তাবিত সেতুর সংযোগ সড়কের দু’পাশে অধিকৃত জায়গাতে অবস্থিত স্থাপনা, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও গাছপালার উপর আর্থ সামাজিক জরিপ এবং জমির মূল্য নির্ধারণী জরিপ পরিচালনা করার নির্দেশ দিয়েছে সেতু বিভাগ। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সেতু বিভাগের ৪ ব্রিজ সম্ভাব্যতা যাচাই প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মোঃ তোফাজ্জেল হোসেন স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ নির্দেশনা দেয়া হয়। ওই চিঠিতে পরামর্শক প্রতিষ্ঠানকে জরিপ কাজে সহযোগিতা করার জন্য  আমতলী পৌর মেয়র মতিয়ার রহমান ও চাওড়া ইউপি চেয়ারম্যান আখতারুজ্জামান বাদল খানসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন।

দক্ষিণাঞ্চলের যোগাযোগ, ব্যবসা-বাণিজ্য, শ্রম বাজার, জাতীয় অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে পায়রা নদীর সেতু হবে নতুন দিগন্তের শুভ সূচনা। পায়রা সমুদ্র বন্দর ও মংলা সমুদ্র বন্দরের মাঝে তৈরি হবে একটি মেল বন্ধন। অল্প খরচে পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে মংলা সমুদ্র বন্দরে পণ্য আনা-নেয়া করা যাবে। দণিাঞ্চলের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে। বরগুনার ও আমতলীর মাঝে সাড়ে তিন কিলোমিটার পায়রা নদীর ফেরি পার হতে যানবাহনগুলোকে এখনও ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপো করতে হয়। সেতু নির্মাণ হলে ওই সড়কে চলাচলে মানুষের আর ভোগান্তি পোহাতে হবেনা। আমতলীর পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক মোঃ মতিয়ার রহমান  সেতু নির্মাণে জরিপ কাজে সহযোগিতার কথা স্বীকার করে  বলেন, এ সেতু হবে দক্ষিণাঞ্চলবাসীর জন্য আশির্বাদ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দক্ষিণাঞ্চল হবে উন্নয়নের রোল মডেল। এ সেতু নির্মাণ হলে আমতলী হবে অর্থনৈতিক জোন।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।