আজকের বার্তা | logo

২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৬ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং

হতশ্রী বরিশাল নগরী

প্রকাশিত : আগস্ট ৩১, ২০১৮, ০০:০৩

হতশ্রী বরিশাল নগরী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ হতশ্রী হয়ে পড়েছে বরিশাল নগরী। যেখানে সেখানে ময়লা-আবর্জনা, যানবাহন পার্কিং, ব্যানার-পোষ্টার আর অবৈধ দোকানপাটে ভরে গেছে গোটা নগরী। এর ফলে একদিকে যেমন পরিবেশ দূষণ ঘটছে, অপরদিকে পথ চলাও দুরূহ হয়ে পড়েছে। সিটি করপোরেশনের পর্যাপ্ত জনবল থাকলেও তারা কাজ করছে না বলে জানা গেছে। ফলে দুর্ভোগে পড়েছেন বরিশাল নগরীর বাসিন্দারা। নগরীর প্রাণ কেন্দ্র সদর রোডের বিবির পুকুর পাড়ে দাঁড়ালেই দেখা যায়, পুকুরের চারপাশ ঘিরে অবৈধ দোকানপাট। পুকুরের পশ্চিম পাশে রয়েছে অবৈধ মাহিন্দ্র স্ট্যান্ড। মোড়েই ফেলা হয় ময়লা-আবর্জনা। দুপুর গড়ালেও ওই আবর্জনা সারানোর কোনো উদ্যোগ নেয়া হয় না। নগরীর বিবির পুকুরসহ বিভিন্ন স্থানে ব্যানার পেষ্টারে সৌন্দর্য বিনষ্ট হচ্ছে। সদর রোডে দেখা হয় বেসরকারি একটি বিমান সংস্থার কর্মকর্তা মো: জুয়েল এর সাথে। তিনি বলেন, ঈদেও ছুটিতে বাড়তি কয়েকদিন বরিশালে আছেন। কিন্তু নগরীর অবস্থা দেখে মনে হয় গ্রাম-গঞ্জের হাটবাজার। যেখানে সেখানে ময়লা-আবর্জনা, যানবাহন পার্কিং। একই ধরনের ক্ষোভ ঝারলেন আ: রহমান নামে অপর এক পথচারী। নগরীর হাতেম আলী কলেজ হোস্টেল সম্মুখে, নতুন বাজার, স্টিমারঘাট, পোর্টরোড, পলাশপুর, ভাটিখানা, সদর রোড, রূপাতলী বাস টার্মিনাল, চৌমাথা, নবগ্রাম সড়ক, মুন্সীরগ্রেজ, গোড়াচাঁদ দাস রোড, বাংলাবাজার সংলগ্ন একাধিক সড়কে পড়ে থাকছে আবর্জনা। অলি-গলির তো কথাই নেই। নিয়মিত পরিষ্কার না করায় ছড়াচ্ছে দুর্গন্ধ। এসব স্থান ঘিরেই অবৈধ ছোট দোকান পাট ও যানবাহনের অবৈধ পার্কিং ব্যবস্থা রয়েছে। যেকারণে পথ চলা দুরূহ হয়ে পড়েছে- এমনটাই জানালেন সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন বরিশালের সাধারণ সম্পাদক কাজী এনায়েত হোসেন শিবলু। জানা গেছে, নগরীর ময়লা-আবর্জনা অপসারণের জন্য সিটি করপোরেশনের (বিসিসি) পর্যাপ্ত জনবল এবং যানবাহন রয়েছে। অবৈধ দোকানপাট ও স্ট্যান্ড উচ্ছেদেও জনবল রয়েছে পর্যাপ্ত। কিন্তু এরপরও এ নগরী হতশ্রী হয়ে পড়ে আছে। অভিযোগ রয়েছে, পরিচ্ছন্ন বিভাগ ও যানবাহন এবং উচ্ছেদ বিভাগের অনেক কর্মকর্তা-কর্মচারীই সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন না করায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। করপোরেশনের এক কাউন্সিলর জানান, সিটি নির্বাচনের পর এখন কারো কাজে মন নেই। নতুন পর্ষদ দায়িত্ব না নেয়া পর্যন্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অনেকটা গা-ছাড়াভাবে কাজ করছেন। যার প্রভাব পড়ছে নগরবাসীর উপর। বরিশাল সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা দিপক লাল মৃধা বলেন, নগরীতে ময়লা-আবর্জনা ফেলার নির্দিষ্ট কোনো ডাস্টবিন নেই। প্রতিদিন নগরীতে ময়লা-আবর্জনা তৈরি হয় ১৫০ টন। এ বর্জ্য অপসারণের জন্য করপোরেশনের ট্রাক আছে ১৯টি এবং ভ্যান ও ট্রলি ৩০০টি। কর্মকর্তাসহ মাঠ পর্যায়ে কর্মী আছেন সহস্রাধিক। তিনি বলেন, বিসিসি’র পরিচ্ছন্ন বিভাগের কর্মীরা দিনে দুই বার ময়লা-আবর্জনা নগরীর বিভিন্ন স্থান থেকে নিয়ে ডাম্পিং স্টেশনে ফেলেন। ওই দুই সময়ের পরও নগরবাসী যত্রতত্রভাবে আবর্জনা ফেলছেন। এ ব্যাপারে বরিশাল সিটি করপোরেশনের উচ্ছেদ শাখার সড়ক পরিদর্শক মো: জাহাঙ্গির বলেন, করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ট্রেনিং এ ছিলেন। সিইও ছুটিতে ছিলেন। যেকারণে নানা সমস্যা দেখা দিয়েছে। তাছাড়া ওয়ার্ডগুলোর দায়িত্ব ভাগ করে দেয়া আছে। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ পেলে তারা অবৈধ দোকানপাট ও যানবাহনের স্ট্যান্ড উচ্ছেদে ব্যবস্থা নিতে পারেন।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।