আজকের বার্তা | logo

১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং

বরিশালে ৮ মাসে ৬৩ জনের প্রাণহানি

প্রকাশিত : আগস্ট ১৮, ২০১৮, ০৩:১১

বরিশালে ৮ মাসে ৬৩ জনের প্রাণহানি

এম. বাপ্পি ॥ বরিশালে একের পর এক দুর্ঘটনায় শিশু-কিশোর মৃত্যুর হার আশংকাজনক হারে বাড়ছে। চলতি বছরের প্রথম ৮ মাসে (জানুয়ারি-আগস্ট) অন্তত ৬১টি বিভিন্ন ধরনের দুর্ঘটনায় ৬৩ জন শিশু-কিশোর মৃত্যুর শিকার হয়েছে। এর মধ্যে পানিতে ডুবে মৃত্যুর হার সবচেয়ে বেশি। আত্মহত্যার ঘটনাও নেহাত কম নয়। এছাড়া সড়ক দুর্ঘটনা, বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, পরিবার-পরিজন এমনকি বিদ্যালয়ে নৈতিক শিক্ষার অভাবে দুর্ঘটনায় মৃত্যুর শিকার হচ্ছে শিশু-কিশোররা। যদিও চলতি বছর বরিশাল সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে নগরীতে শিশুদের সাঁতার শেখা কার্যক্রম পরিচালিত হয়। তবে কেবলমাত্র নগরকেন্দ্রিক হওয়ায় এ কার্যক্রমের সুফল তেমন একটা মেলেনি। সূত্র মতে, চলতি আগস্ট মাসে আমতলী ও কাউখালী এবং গৌরনদীতে পানিতে ডুবে ৪ শিশুর মৃত্যু ঘটে। এছাড়া মুলাদীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ১ মাদ্রাসা শিক্ষার্থী, আগৈলঝাড়ায় প্রাইভেট পড়ার সময় ১ এবং কাউখালীতে অটোচাপায় অপর ১ শিক্ষার্থী মারা যায়। জুলাই মাসে বরিশালের বিভিন্ন জেলা-উপজেলায় সড়ক দুর্ঘটনা ও পানিতে ডুবে ৫ শিক্ষার্থী মারা যায়। জুন মাসে বিভিন্ন দুর্ঘটনায় মৃত্যু ঘটে ৮ শিশু-কিশোরের। মে মাসে ৬ এবং এপ্রিল মাসে ১৫ শিশু-কিশোর দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যুর শিকার হয়। এর মধ্যে ২৫ এপ্রিল আমতলীতে বাবা-মায়ের সাথে অভিমান করে কেওয়াবুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী জান্নাতি (১২) গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। ১৪ মে ভোলার লালমোহনে বিদ্যুতের ছেঁড়া তারে জড়িয়ে আলামিন (৫) ও সিয়াম (৩) নামে ২ শিশুর মৃত্যু ঘটে। ১৩ মে আগেলঝাড়ার রামশীল গ্রামের অরবিন্দু বাড়ৈর ৩ বছরের ছেলে অয়ন বাড়ৈ কুকুরের কামড়ে আহত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। মার্চে ৭ এবং ফেব্রুয়ারি মাসে বিভিন্ন দুর্ঘটনায় ৪ শিশু-কিশোর মৃত্যুবরণ করে। এছাড়া জানুয়ারি মাসে দুর্ঘটনায় মৃত্যুবরণকারী ১১ শিশু-কিশোরের মধ্যে ২৯ জানুয়ারি বরগুনার তালতলীতে রাব্বি নামের (৯) এক শিশুর লাশ বাড়ির পুকুর পাড় থেকে এবং ৩১ জানুয়ারি ভোলার লালমোহনে নিখোঁজের ৩ দিন পর সাথী (১১) বেগম নামের কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ২৩ জানুয়ারি গলায় বড়ইয়ের (কুল) আঁটি আটকে গৌরনদী উপজেলার খাঞ্জাপুর ইউনিয়নের পূর্ব ডুমুরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২য় শ্রেণির ছাত্র রাসেল হাওলাদার (৮) এর করুণ মৃত্যু ঘটে। এছাড়া নগরী সংলগ্ন কীর্তনখোলা নদী থেকে ১ কিশোর এবং বানারীপাড়া, বাবুগঞ্জ, আগৈলঝাড়ায় পানিতে ডুবে ৪ শিশুর সলিল সমাধি ঘটে। অন্যদিকে, ৩১ জানুয়ারি ঝালকাঠির কাঠালিয়া উপজেলার কেবিকে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী রুবি আক্তার (১৩) নিজ ঘরের আড়ার সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে। এ বিষয়ে বিএম কলেজের উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রেখা সুলতানা বলেন, দুর্ঘটনাজনিত শিশু-কিশোর মৃত্যুর হার বর্তমানে সামাজিক ব্যাধিতে পরিণত হয়েছে। এ মৃত্যুর হার শহরের তুলনায় গ্রামাঞ্চলে আশংকাজনক অবস্থায় পৌঁছেছে। বাবা-মা এবং স্বজনদের অসচেতনার জন্যই শিশু-কিশোররা দুর্ঘটনায় পতিত হয়ে অকালে প্রাণ হারাচ্ছে। তিনি বলেন, দুর্ঘটনারোধে স্কুল এবং বাড়িতে অভিভাবকদের নিয়ে সচেতনতামূলক সেমিনার করা যেতে পারে। পাঠ্য বইয়ে এ বিষয়ে সহশিক্ষা অন্তর্ভুক্তির পাশাপাশি শিশু-কিশোরদের সমন্বয়ে বিতর্ক প্রতিযোগিতা এবং প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা উচিত। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় সাঁতার বিষয়টি অন্তর্ভুক্তি এবং সপ্তাহে ১দিন অভিভাবকদের সমন্বয়ে বৈঠক করে দুর্ঘটনাজনিত শিশু-কিশোর মৃত্যুর হার অনেকটাই রোধ করা সম্ভব বলে মতামত ব্যক্ত করেন তিনি।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।