আজকের বার্তা | logo

১১ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং

লঞ্চের ভিআইপি লাউঞ্জে পুলিশের উপর অস্ত্রধারীদের হামলা: ২৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশিত : জুলাই ১৬, ২০১৮, ০১:৫২

লঞ্চের ভিআইপি লাউঞ্জে পুলিশের উপর অস্ত্রধারীদের হামলা: ২৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

খন্দকার রাকিব ॥ বরিশাল কেন্দ্রীয় লঞ্চঘাটে অবস্থানরত লঞ্চের ভিআইপি লাউঞ্জে পুলিশের উপর অস্ত্রধারীদের হামলার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে সুন্দরবন-১১ লঞ্চে এ ঘটনা ঘটে। এতে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ ৩ পুলিশ সদস্য আহত হন। ঘটনার প্রায় ২৪ ঘণ্টা পরে বরিশাল কোতোয়ালী মডেল থানা পুলিশের এসআই নিজাম মাহামুদ ফকির বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় ১ জনের নাম উল্লেখ করে ২০ থেকে ২৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়। মামলা সূত্রে জানা গেছে, জন প্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব  ফয়েজ আহম্মেদ ও প্রাধনমন্ত্রীর কার্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব সাজ্জাদুল হাসানকে বিদায় জানানোর জন্য বরিশাল কেন্দ্রীয় লঞ্চঘাটে অবস্থানরত সুন্দরবন-১১ লঞ্চে যান বরিশাল রেঞ্জ ডিআইজি শফিকুল ইসলাম (বিপিএম, পিপিএম) ও বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার (ভারপ্রাপ্ত) মাহফুজুর রহমান। এসময় তারা লঞ্চের ভিআইপি লাউঞ্জে প্রবেশ করেই দেখতে পান, দাড়িওয়ালা মধ্য বয়সী এক ব্যক্তি একটি বড় অস্ত্র হাতে নিয়ে সোফার উপরে বসে আছেন। এসময় ডিআইজি ও পুলিশ কমিশনার (ভারপ্রাপ্ত) নিজেদের পরিচয় দিয়ে ভিআইপি লাউঞ্জে উপস্থিত ভিআইপি যাত্রী ব্যতীত অতিরিক্ত লোকজনেক সংরক্ষিত এলাকা ছেড়ে অন্যত্র যাওয়ার জন্য অনুরোধ এবং ভিআইপি লাউঞ্জে দুই সচিব আসার বিষয়ে অবহিত করেন। এসময় পুলিশ কমিশনারের স্টাফ অফিসার সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার জাহিদুল ইসলাম নির্বাচন ও দুই সচিবের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে অস্ত্রধারী ওই ব্যক্তিকে অস্ত্রের লাইসেন্স দেখানোর জন্য অনুরোধ করেন। কিন্তু অস্ত্রধারী ওই ব্যক্তি তার অস্ত্রের লাইসেন্স দেখাতে না চাইলে পুলিশ কমিশনারের দেহরক্ষী কন্সটেবল হাসিব ওই ব্যক্তিকে ভিআইপি লাউঞ্জ থেকে বাহিরে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করেন। অনুরোধে ক্ষিপ্ত হয়ে অস্ত্রধারী ব্যক্তির সাথে থাকা সৈকত ইমরান নামের অপর এক ব্যক্তি কমিশনারের দেহরক্ষীর সাথে মারমুখি হয়ে তর্ক-বিতর্কে জড়ান। এক পর্যায়ে অস্ত্রধারী ব্যক্তি ও সৈকত ইমরান উত্তেজিত হয়ে তাদের সাথে থাকা সঙ্গীদের নিয়ে পুলিশ কন্সটেবল হাসিবকে এলোপাতাড়ি মারপিট করেন। পুলিশ কমিশনারের স্টাফ অফিসার সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার জাহিদুল ইসলাম তাদের থামাতে চেষ্টা করলে কন্সটেবলসহ তাকেও মারপিট করেন। এসময় তারা তাদের পরিচয় দেন। পরিচয় দেয়ার পরেও অস্ত্রধারী ব্যক্তি ও সৈকত ইমরানসহ আরো ২০ থেকে ২৫ জন তাদের উপর হামলা চালান। একপর্যায়ে অস্ত্রধারী ব্যক্তি তার অস্ত্র দিয়ে পুলিশ কমিশনারে স্টাফ অফিসার ও বডিগার্ড মোঃ হাসিবকে গুলি করার চেষ্টা করেন। পাশাপাশি পুলিশ কমিশনারের স্টাফ অফিসারকে হত্যার উদ্দেশ্যে অপহরণ করার চেষ্টা করে। এসময় বিএমপি মিডিয়া বিভাগে কর্মরত কন্সটেবল ওবায়েদ ঘটনার ছবি তুলতে চাইলে তাকে মারপিট করে ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেন এবং তাকে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করেন। এক পর্যায়ে পরিস্থিতি বেগতিক দেখে পুলিশ কমিশনার বিএমপি কন্ট্রোল রুমে জানালে মামলার বাদী এসআই রিয়াজসহ কোতোয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ), কোতোয়ালী মডেল থানার সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার অতিরিক্ত ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন। এসময় উল্লেখিত দুই সচিব লঞ্চে অবস্থান করলেও ভিআইপি লাউঞ্জে ঢুকতে পারছিলেন না। পরে উপস্থিত পুলিশ সদস্যরা উভয় সচিবকে ভিআইপি লাউঞ্জে নিয়ে যান। ঘটনার প্রায় ২৪ ঘণ্টা অতিবাহিত হওয়ার পরে বরিশাল কোতোয়ালী মডেল থানায় সরকারি কাজে বাধা, হত্যার উদ্দেশ্যে পুলিশ সদস্যদের মারপিট ও গুরুতর আহত করার দায়ে এসআই নিজাম মাহামুদ ফকির বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন (নম্বর ৩৩/১৮)। মামলাটির তদন্তের দায়ীত্ব দেয়া হয় কোতোয়ালী মডেল থানার এসআই মহিউদ্দিন মাহিকে। উল্লেখ্য, ঘটনাস্থলে থাকা যাত্রীদের কাছ থেকে জানা যায়, ঘটনার সময় অস্ত্রধারী ব্যক্তি ও তার সাথে থাকা সৈকত ইমরান পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথেও খারাপ আচরণ করেন।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।