আজকের বার্তা | logo

৬ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং

মেসি-নেইমারদের এক গোলেই মিলবে ১০ হাজার শিশুর খাবার

প্রকাশিত : জুন ০১, ২০১৮, ২০:১৪

মেসি-নেইমারদের এক গোলেই মিলবে ১০ হাজার শিশুর খাবার

অনলাইন সংরক্ষণ  /// প্রতি মৌসুমে কত কত গোল করেন মেসি ও নেইমার। সে গোলের মূল্য হিসেবে তাঁদের দল পায় জয়। সমর্থকেরা পায় অনাবিল আনন্দ। কিন্তু সেই একেকটি গোল যদি রূপ নেয় খাদ্যে। আর সে খাদ্যে যদি ক্ষুধা মেটে হাজার হাজার বুভুক্ষু মানুষের? মেসি-নেইমাররা এখন এমন অনুপ্রেরণা নিয়েই খেলতে নামবেন মাঠে।

লাতিন আমেরিকা অঞ্চলটা মূলত পরিচিত ফুটবলের জন্যই। ফুটবল বাদে সামগ্রিকভাবে চিন্তা করলে দক্ষিণ ও মধ্য আমেরিকার দেশগুলো প্রতিনিয়ত লড়ছে দারিদ্র্যের সঙ্গে। অনেক শিশুই জানে না পরের খাবারটি সময়মতো জুটবে কি না। তাই লাতিন আমেরিকা ও ক্যারিবীয় অঞ্চলে খাদ্য দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে মাস্টারকার্ড। গতকাল শুরু হয়েছে এ প্রকল্প। ২০২০ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত মেসি ও নেইমার যতবার আন্তর্জাতিক কোনো টুর্নামেন্টে গোল করবেন, ততবার ১০ হাজার শিশুর জন্য মাস্টারকার্ড খাদ্য পাঠাবে জাতিসংঘের বিশ্বখাদ্য প্রকল্পের কাছে।

মেসি এ প্রকল্পে অংশ নিতে পেরে তৃপ্ত, ‘আমি এই কাজের সঙ্গে যুক্ত হয়ে আসলেই অনেক গর্বিত। এই ছোট্ট কাজটা হাজার হাজার শিশুর মুখে এক চিলতে হাসি ফোটাবে।’ নেইমারও এই কাজের সঙ্গে যুক্ত হয়ে অনেক খুশি, ‘আমরা চাই এই এলাকার প্রতিটি লোকের হাতে এক থালা খাবার, আর বুকভর্তি আশা থাকুক। আমরা লাতিন আমেরিকানরা বড় কোনো বিষয়ে একত্র হতে জানি। আমরা একসঙ্গে ক্ষুধার বিপক্ষে লড়ব।’

মাস্টারকার্ডের আঞ্চলিক মুখপাত্র অ্যানা ফেরেলের মতে, এই কাজটি এই অঞ্চলের মানুষের জন্য অনেক উপকারী হবে। প্রায় ৪ কোটির মতো মানুষ লাতিন আমেরিকা আর ক্যারিবিয়ান অঞ্চল মিলে ক্ষুধার জ্বালায় কষ্ট পাচ্ছে, যাদের বেশির ভাগই শিশু। দারিদ্র্য দূর করতে এটি একটি পদক্ষেপমাত্র। মাস্টারকার্ড জানিয়েছে, এর মাঝেই ৩ লাখ খাবার তারা দিয়েছে এ প্রকল্পে।

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।