আজকের বার্তা | logo

৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ | ২১শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং

বরগুনায় পুলিশের ভয় দেখিয়ে পরীক্ষার্থীর খাতা কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ!

প্রকাশিত : মে ২২, ২০১৮, ২৩:৩৮

বরগুনায় পুলিশের ভয় দেখিয়ে পরীক্ষার্থীর খাতা কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ!

অনলাইন সংরক্ষণ  // বৃষ্টির কারণে পরীক্ষার হলে পৌঁছাতে ১৫ মিনিট দেরি হয় ডিগ্রি (পাস) কোর্সের পরীক্ষার্থী শফিকুল ইসলামের। তাকে পরীক্ষার খাতা ও প্রশ্নও দেয়া হয়। পরে পুলিশের ভয় দেখিয়ে খাতা ও প্রশ্ন কেড়ে নিলেন পরীক্ষা পরিচালনা কমিটির লোকজন। পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে না পারায় তার শিক্ষাজীবন অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

এ ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার (২২ মে) সকালে বরগুনার আমতলী ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রের বকুলনেছা মহিলা কলেজ ভেন্যুতে।

খোঁজখবর নিয়ে জানা গেছে- শফিকুল ইসলাম ২০১৫ সালে আমতলী ডিগ্রি কলেজ থেকে ডিগ্রি পাস কোর্স পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। ওই বছর সমাজবিজ্ঞান বিষয়ের পরীক্ষায় অকৃতকার্য হয়। এ বিষয়ের পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য ওই পরীক্ষার্থী মঙ্গলবার সোয়া ৯টায় আমতলী বকুলনেছা মহিলা কলেজ ভেন্যুতে আসেন।

ওই ভেন্যুর ১০৫নম্বর কক্ষে পরীক্ষার্থী উপস্থিত হলে কক্ষ পরিদর্শকরা তাকে পরীক্ষার খাতা ও প্রশ্ন দেয়। পরীক্ষার্থী খাতায় তার রোল ও রেজিস্ট্রেশন নম্বর ভরাট করে। এমন মুহূর্তে পরীক্ষা পরিচালনা কমিটির সদস্য ও আমতলী সরকারি কলেজের পদার্থবিজ্ঞান বিষয়ের প্রভাষক মো. আবদুল কুদ্দুস পরীক্ষার্থীকে খাতা ও প্রশ্ন নিয়ে পরীক্ষা পরিচালনা কমিটির কক্ষে ডেকে নেয়।

বিলম্বে পরীক্ষা কেন্দ্রে আসার অভিযোগ তুলে খাতা ও প্রশ্ন কেড়ে নেয়ার চেষ্টা করে। পরীক্ষার্থী শফিকুল বৃষ্টির কারণে আসতে বিলম্ব হয়েছে বলে অনুরোধ করলেও তারা অনুরোধ রাখেনি। পরে পরীক্ষার্থী খাতা ও প্রশ্ন দিতে না চাইলে পুলিশের ভয় দেখিয়ে খাতা ও প্রশ্ন কেড়ে নেন এবং তাকে পরীক্ষার কেন্দ্রে থেকে বের করে দেয়।

পরীক্ষার্থী সফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, বৃষ্টির কারণে পরীক্ষা কেন্দ্রে যেতে ১৫ মিনিট বিলম্ব হয়। পরীক্ষা কেন্দ্রে যাওয়ার পরে কক্ষ পরিদর্শকরা আমাকে খাতা ও প্রশ্ন দেয়। ওই খাতায় আমি আমার রোল ও রেজিস্ট্রেশন ভরাট করেছি। কিছুক্ষণ পরে কুদ্দুস স্যার আমাকে অফিস কক্ষে ডেকে খাতা কেড়ে নেন।

তিনি বলেন- আমি পরীক্ষা দিতে না পারায় আমার শিক্ষাজীবন অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।

আমতলী ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রের পরীক্ষা পরিচালনা কমিটির সদস্য মো. আবদুল কুদ্দুস সাংবাদিকদের বলেন, বিলম্ব করে পরীক্ষা দিতে আসায় পরীক্ষা পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক মো. গোলাম মোস্তফার পরামর্শে খাতা ফেরত নিয়েছি।

পরীক্ষা পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক মো. গোলাম মোস্তফা সাংবাদিকদের বলেন, পরীক্ষা শুরুর পৌনে দুই ঘণ্টা পরে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে আসায় তাকে খাতা দেয়া হয়নি।

আমতলী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) গাজী আবদুল মন্নান সাংবাদিকদের বলেন, শিক্ষকরা বিশেষ বিবেচনায় ওই পরীক্ষার্থীকে খাতা ও প্রশ্ন দিয়েছিল। কিন্তু পরীক্ষা দিতে বিলম্বে আসায় আমার (অধ্যক্ষ) নির্দেশে আবার খাতা ও প্রশ্ন ফেরত নেয়া হয়েছে।’

Share Button


আজকের বার্তা

আগরপুর রোড, বরিশাল সদর-৮২০০

বার্তা বিভাগ : ০৪৩১-৬৩৯৫৪(১০৫)
ফোনঃ ০১৯১৬৫৮২৩৩৯ , ০১৬১১৫৩২৩৮১
ই-মেলঃ ajkerbarta@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Site Map
Show site map

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রকাশকঃ কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম
সম্পাদক ও প্রতিষ্ঠাতাঃ কাজী নাসির উদ্দিন বাবুল
Website Design and Developed by
logo

আজকের বার্তা কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।